চাঁচল, ৩০ এপ্রিলঃ পৈত্রিক সম্পত্তির জেরে দুই ভায়ের দীর্ঘদিনের বিবাদ। বিবাদের জেরে দেওরের হাতে খুন হলেন বৌদি। খুন করার পর ধারালো অস্ত্র নিয়ে থানায় আত্মসমর্পণ করলেন ওই ব্যক্তি। মঙ্গলবার মালদার হরিশ্চন্দ্রপুরের হলদিবাড়ি এলাকায় এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতার নাম সঞ্জু মালা দাস। অভিযুক্ত দেওয়ার এর নাম বধুয়া দাস। মৃতার পরিবার সূত্রে খবর, দীর্ঘদিন ধরেই পৈত্রিক সম্পত্তি নিয়ে দুই ভাইয়ের মধ্যে বিবাদ চলছিল। এদিন সম্পত্তি নিয়ে বিবাদ চরমে পৌঁছলে ওই মহিলাকে বাড়িতে একা পেয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপাতে থাকে অভিযুক্ত বধুয়া। পরবর্তীতে অভিযুক্ত স্বয়ং ধারালো অস্ত্র নিয়ে হরিশ্চন্দ্রপুর থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করেন। হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এদিন অভিযুক্তকে চাঁচল মহকুমা আদালতে পেশ করা হবে।