রাজনৈতিক সংঘর্ষে জখম ১ বিজেপি কর্মী, অভিযুক্ত তৃণমূল

62

সিতাই: ভোটের মুখে রাজনৈতিক উত্তেজনা ছড়াল সিতাইয়ে। বৃহস্পতিবার রাজনৈতিক সংঘর্ষের ঘটনায় সিতাই ব্লকের কেশরিবাড়ি গ্রামের এক বিজেপি কর্মী জখম হন বলে জানা গিয়েছে। অভিযোগের তীর তৃণমূলের দিকে। অভিযোগ অস্বীকার করে তৃণমূলের পাল্টা অভিযোগ, বিজেপি তাদের দুটি দলীয় কার্যালয়ে ভাংচুর চালিয়েছে। এদিকে বুধবার রাতভর এলাকায় ব্যাপক বোমাবাজির ঘটনায় ভীতসন্ত্রস্ত স্থানীয়রা। গোটা ঘটনার তদন্তে নেমেছে সিতাই থানার পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার সিতাই বিধানসভার অন্তর্গত সিতাই ব্লকের সিতাই-২ গ্রাম পঞ্চায়েতের কেশরিবাড়ি গ্রামের এক বিজেপি কর্মীর বাড়িতে দলীয় ফ্ল্যাগ লাগানোর ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক উত্তেজনা ছড়ায়। সংঘর্ষের জেরে এক বিজেপি কর্মী জখম হন।

- Advertisement -

বিজেপির জেলা কমিটির সদস্য তথা সিতাইয়ের বিজেপি নেতা নারায়নচন্দ্র বর্মন বলেন, ‘আমাদের এক দলীয় কর্মী তাঁর বাড়িতে বিজেপির ফ্ল্যাগ লাগানোয় তৃণমূলের দুষ্কৃতীরা হামলা চালায়। তাঁকে মারধর করা হয়।’

তৃণমূলের সিতাই ব্লক সহ-সভাপতি শ্যামল গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, ‘বিজেপির গোষ্ঠী সংঘর্ষে এক ব্যক্তি জখম হয়েছেন বলে শুনেছি। তৃণমূল ওই ঘটনার সঙ্গে কোনওভাবেই যুক্ত নয়। শ্যামলবাবুর পাল্টা অভিযোগ, বিজেপির দুষ্কৃতিরা তৃণমূলের দুইটি দলীয় কার্যালয়ে ভাংচুর চালিয়েছে।’

এদিকে বুধবার রাতভর সিতাই ব্লকের বিভিন্ন গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় ব্যপক বোমাবাজি চলে বলে স্থানীয়দের অভিযোগ। তৃণমূল ও বিজেপি এঘটনায় একে অপরের দিকে অভিযোগের আঙ্গুল তুলেছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক স্থানীয় বাসিন্দা বলেন, ‘এবার নির্বাচনে এলাকার সুস্থ পরিবেশ আদৌ বজায় থাকবে কিনা সে বিষয়ে আমাদের মনে সংশয় ছিল। শেষমেশ সেই আশঙ্কাই সত্যি হল। গতকাল রাতে এলাকায় বোমাজির দাপটে আমরা ভীতসন্ত্রস্ত। তৃণমূল, বিজেপির মধ্যে কারা এই বোমাবাজি করল সেটা আমাদের দেখার বিষয় নয়। আমরা আজ সন্ধ্যার পর বাড়ি থেকে বের হতে সাহস পাচ্ছি না। আমরা চাই শান্তিপূর্ণভাবে এই নির্বাচন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হোক।’