শামুকতলায় করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির মৃত্যু

শামুকতলা: আলিপুরদুয়ার-২ ব্লকের শামুকতলার এক ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন। শক্তিনগর এলাকার বাসিন্দা ষাটোর্ধ ওই ব্যক্তি বেশকিছু দিন ধরেই জ্বর ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন তিনি। তিনি অবসরপ্রাপ্ত বনকর্মী ছিলেন। বৃহস্পতিবার রাতে তীব্র শ্বাসকষ্ট শুরু হলে তাঁকে যশোডাঙ্গায় গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

সেখান থেকে আলিপুরদুয়ার জেলা হাসপাতালে রেফার করা হয়। আলিপুরদুয়ার জেলা হাসপাতালেই তাঁর মৃত্যু হয়। মৃত্যুর পর তাঁর লালার নমুনার রিপোর্ট পজিটিভ আসে বলে স্বাস্থ্যদপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে। এই ঘটনার খবর জানাজানি হতেই শামুকতলা এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। স্থানীয় প্রশাসনের তরফে আক্রান্ত ব্যক্তির বসতি এলাকায় ইতিমধ্যেই ব্যাড়িকেড লাগানো হয়েছে।

- Advertisement -

শামুকতলা থানার ওসি বিরাজ মুখোপাধ্যায় বলেন, করোনায় আক্রান্ত হয়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। এখনও তাঁর মৃতদেহ আমাদের হাতে তুলে দেওয়া হয়নি। পরবর্তীতে ব্লক প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলে দ্রুত এলাকায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আলিপুরদুয়ার-২ ব্লকের বিএমওএইচ ডাঃ তন্ময় দেবনাথ বলেন, ইতিমধ্যেই আক্রান্ত ব্যক্তি কার কার সংস্পর্শে এসেছিলেন, তাঁদের তালিকা সংগ্রহের কাজ শুরু হয়েছে। পরিবারের সকলকে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। যত দ্রুত সম্ভব তাঁদের লালার নমুনা সংগ্রহ করে পাঠানো হবে। পাশাপাশি যে চিকিৎসক মৃত ব্যক্তির চিকিৎসা করেছেন, তাঁকেও আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে। হাসপাতালও স্যানিটাইজ করা হবে।

শামুকতলা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান পবন রাই বলেন, যে ওষুধের দোকান থেকে তিনি ওষুধ নিয়েছেন সেই দোকানও স্যানিটাইজ করে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এলাকায় লকডাউনের বিষয়ে ব্লক প্রশাসন, পুলিশ ও ব্যবসায়ী সমিতির সঙ্গে আলোচনা করে দ্রুত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। আলিপুরদুয়ার-২ ব্লকের জয়েন্ট বিডিও হরেন্দ্রনাথ অধিকারী বলেন, স্বাস্থ্য দপ্তরের নির্দেশিকা অনুযায়ী স্থানীয় প্রশাসনের সঙ্গে আলোচনা করে দ্রুত প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করা হবে।

এদিকে এলাকায় করোনা সংক্রমণ রুখতে দ্রুত প্রয়োজনীয় পদক্ষেপের দাবি করছেন ব্যবসায়ীদের একাংশ।স্থানীয় হাট ব্যবসায়ী সুশীল পন্ডিত বলেন, শুক্রবার শামুকতলায় এলাকার সাপ্তাহিক হাট বসে। এদিন ওই ব্যক্তির মৃত্যুর খবরের পর আমরা দুপুর ২টোর মধ্যে হাট বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিই। ব্যবসায়ীদের তরফে ৭ দিন লকডাউন রাখার দাবিও উঠে এসেছে। শামুকতলা ব্যবসায়ী সমিতির সম্পাদক মানিক দে বলেন, লকডাউনের বিষয়ে এদিন সন্ধ্যায় ব্যবসায়ী সমিতির সদস্যদের নিয়ে স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েত কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।