কামাখ্যাগুড়ি, ১২ সেপ্টেম্বরঃ পণ্য বোঝাই ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে মৃত্যু হল এক মহিলার। দুর্ঘটনায় আহত হন প্রায় ১২জন। বৃহস্পতিবার বিকেলে দুর্ঘটনাটি ঘটে কুমারগ্রাম ব্লকের কামাখ্যাগুড়ি ঘোড়ামারা চৌপথিতে। মৃত ওই মহিলার নাম সূর্যমণি নার্জিনারি। বাড়ি পশ্চিম চ্যাংমারির মারাখাতা এলাকায়।

এদিন যাত্রী বোঝাই একটি টোটো ৩১সি জাতীয় সড়ক পারাপারের সময় পণ্যবাহী ট্রাকের মুখে এসে পড়লে ট্রাকটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে প্রথমে টোটোটিকে ধাক্কা মারে। এরপর ট্রাকটি ডিভাইডার ভেঙে জাতীয় সড়কের পাশে যাত্রীশেডের সামনে দাঁড়িয়ে থাকা একটি ম্যাক্সিক্যাবের পিছনে ধাক্কা মারে। সেই সময় ম্যাক্সিক্যাবে উঠছিলেন ওই মহিলা। ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তাঁর। দুর্ঘটনায় আহত হন টোটো এবং ম্যাক্সিক্যাবে থাকা ১২ জন যাত্রী।  তাঁদের কামাখ্যাগুড়ি রুরাল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তাঁদের মধ্যে দু’জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাঁদেরকে আলিপুরদুয়ার জেলা হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য আলিপুরদুয়ার জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এদিকে দুর্ঘটনার পর ক্ষুব্ধ জনতা পুলিশ এবং যানবাহন নিয়ন্ত্রণের অব্যবস্থাকে দায়ি করে ঘোড়ামারা চৌপথিতে ট্রাফিক সিগনাল চালুর পাশাপাশি ট্রাফিক পুলিশ নিয়োগের দাবি জানান। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে কুমারগ্রাম থানার কামাখ্যাগুড়ি আউটপোস্টের পুলিশ।