বারবিশা, ১৭ জুলাইঃ জাতীয় সড়কে দাঁড়িয়ে থাকা লরির পিছনে ধাক্কায় জখম হলেন মোটরবাইক চালক। বুধবার বিকেলে দুর্ঘটনাটি ঘটে অসম-বাংলা সীমান্তের বারবিশা কমার্শিয়াল সেলস ট্যাক্স চেকপোস্ট এলাকায়। জখম ব্যক্তির নাম ফইজুদ্দিন মিয়াঁ। তাঁর বাড়ি কোচবিহারের ডাউয়াগুড়ি এলাকায়। আহত অবস্থায় ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে আলিপুরদুয়ার জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়। তাঁর শারীরিক পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় সেখান থেকে তাঁকে কোচবিহার জেলা হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে। লরিটি আটক করেছে পুলিশ। ঘটনার তদন্ত চলছে।

স্থানীয়রা জানান, অসম-বাংলা সীমান্তের বারবিশা কমার্শিয়াল সেলস ট্যাক্স চেকপোস্ট লাগোয়া নাজিরান দেউতিখাতা এলাকায় ৩১ সি জাতীয় সড়কে অবৈধভাবে পার্কিংয়ের জেরে প্রায়শই পথ দুর্ঘটনা ঘটছে। বিষয়টি নিয়ে কোনোরকম হেলদোল নেই পুলিশ ও প্রশাসনের কর্তাদের। প্রশাসনের নজরদারির অভাবে লরি চালকরা নিজেদের খেয়ালখুশিমতো জাতীয় সড়কে দীর্ঘক্ষণ এমনকি দিনরাত গাড়ি পার্কিং করে রাখছে। ব্যস্ততম ওই সীমান্ত এলাকায় নেই ট্রাফিক সিগনালের ব্যবস্থা। যানবাহন নিয়ন্ত্রণে নেই পুলিশকর্মী। তাই পথ দুর্ঘটনা এড়াতে স্থানীয়রা সেখানে পুলিশ মোতায়েনের পাশাপাশি আধুনিক ট্রাফিক সিগনালের ব্যবস্থা গড়ার দাবি জানিয়েছেন। এই ব্যাপারে কোঁচবিহার জেলা পুলিশের ডিএসপি ট্রাফিক চন্দন দাস জানান, জাতীয় সড়কের ওপর যানবাহন পার্কিং করে রাখার নিয়ম নেই। পথ দুর্ঘটনা সম্পর্কে বক্সিরহাট থানায় খোঁজখবর নেওয়া হবে। দুর্ঘটনা এড়াতে এলাকার বাসিন্দারা তাঁদের দাবিদাওয়া এবং অভিযোগের কথা লিখিতভাবে জানালে সেসব খতিয়ে দেখে অবশ্যই পদক্ষেপ নেওয়া হবে। জাতীয় সড়কে অবৈধভাবে গাড়ি পার্কিং করা হলে কোচবিহার জেলা পুলিশ তাঁদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেবে।