শালকুমারহাটে হাতির হানায় মৃত ১

107

শালকুমারহাট: বুনো হাতির হানায় এক ব্যক্তির মৃত্যুর ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে আলিপুরদুয়ার-১ ব্লকের শালকুমারহাটে। মৃতের নাম বিমল রায় ওরফে সন্টু (৪৫)। পুলিশ ও বন দপ্তর সূত্রের খবর, জলদাপাড়া পূর্ব রেঞ্জের শিসামারা বিট লাগোয়া শালকুমার-২ গ্রাম পঞ্চায়েতের উত্তর সিধাবাড়ি গ্রামে বুধবার রাতে একটি বুনো হাতি বের হয়। ওই গ্রামের সন্টু বর্মনের বাড়িতে হামলা চালায় হাতিটি। মাঝরাতে বাড়িতেই হাতির পায়ে পিষ্ট হয়ে মৃত্যু হয় তাঁর। সূত্রের খবর, বিমল বিয়ে করেননি। একাই একটি ঘরে থাকেন। রাতে বৃষ্টিও হয়েছিল। তাই রাতের দিকে বিষয়টি কেউ টের পাননি। বৃহস্পতিবার সকালে প্রতিবেশীরা বাড়ির সামনে বিমলের মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখেন। খবর পেয়ে এদিন সকালে বন দপ্তর ও সোনাপুর ফাঁড়ির পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।

সিধাবাড়ির পঞ্চায়েত সদস্য বিদুর বিশ্বাস বলেন, ‘ঘটনাস্থল থেকে এক কিমি দূরেই বনাঞ্চল। বন ও গ্রামের সীমানায় কোনও ফেন্সিং নেই। তাই প্রায় রাতেই বুনো হাতি এলাকায় ঢুকে তাণ্ডব চালায়। এজন্য এলাকাবাসীর মধ্যে ক্ষোভ রয়েছে।’

- Advertisement -

এদিকে, পরে ঘটনাস্থলে আসেন জলদাপাড়া পূর্ব রেঞ্জার স্বপন মাঝি। তিনি ফেন্সিয়ের ব্যাপারে গ্রামবাসীদের আশ্বস্ত করেন। পরে পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য মৃতদেহ আলিপুরদুয়ার জেলা হাসপাতালে পাঠায়। রেঞ্জার স্বপন মাঝি বলেন, ‘বন দপ্তরের নিয়ম মেনে মৃতের বৈধ উত্তরাধিকারীকে ৫ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে। আর গ্রামবাসীর দাবি মেনে আগামী অর্থবর্ষে ফেন্সিংও তৈরি করা হবে।’