মাল শহরে করোনা আক্রান্ত আরও ১

363

মালবাজার: মঙ্গলবার রাতে মাল শহরের এক গৃহবধূর দেহে করোনার সংক্রমণ ধরা পড়ল।

মাল পুরসভার স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই গৃহবধূ শহরের ১১ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা। সম্প্রতি ওই গৃহবধূর মেয়ে মাল শহর থেকে অসমের শ্বশুরবাড়িতে ফিরে যান। সেখানে গিয়ে তাঁর করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে। এরপরই পুরসভা তড়িঘড়ি করে ১১ নম্বর ওয়ার্ডের ওই পরিবার ও ভাড়াটিয়াদের কোয়ারান্টিন করে।

- Advertisement -

১৩ জুন পরিবারের সদস্য-সদস্যা, ভাড়াটিয়া এবং সরাসরি সংস্পর্শে আসা ৯ জনের লালা সংগ্রহ করে কোভিড ১৯ পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। মাল পুরসভার প্রশাসক বোর্ডের চেয়ারর্পাসন স্বপন সাহা বলেন, মঙ্গলবার রাতে ওই গৃহবধূর পরীক্ষা কোভিড ১৯ পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। অন্যদের রিপোর্টগুলি নেগেটিভ এসেছে। রাতেই ওই গৃহবধূকে স্বাস্থ্য বিভাগ জলপাইগুড়ি কোভিড হাসপাতালে পাঠানোর উদ্যোগ নিচ্ছে।

স্বপনবাবু বলেন, আমরা ওই বাড়িটিকে কনটেনমেন্ট জোন করছি। নিয়ম অনুসারে পার্শ্ববর্তী এলাকা বাফার জোন করা হবে। বুধবার এলাকায় স্যানিটাইজেশন করা হবে। তিনি জানান, মালবাজার সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে লালা পরীক্ষার জন্য ট্রুনাট মেশিন বসানোর চেষ্টা করছি।

উল্লেখ্য, এরপূর্বে মাল শহরে ৫ জনের করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছিল। মঙ্গলবার দুপুরের মধ্যেই ৫ জনই  সুস্থ এবং স্বাভাবিক অবস্থায় ঘরে ফিরে আসেন। শহরবাসীর মধ্যে স্বস্তি ফেরে। এরপর মঙ্গলবার রাতে শহরের আরও একজনের সংক্রমণ ধরা পড়ল।

প্রশাসন, পুরসভা এবং স্বাস্থ্য বিভাগের পক্ষ থেকে শহরবাসীদের কাছে আতঙ্কিত না হওয়ার আবেদন করা হয়েছে। অযথা গুজব না ছড়ানোর পাশাপাশি সচেতনতার পরিচয় দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার পাশাপাশি মাস্ক ব্যবহার করার কথা বলা হয়েছে।