করোনাকে জয় করে ঘরে ফিরলেন আরও ১১ জন

বিশ্বজিৎ সরকার, রায়গঞ্জ: করোনাকে জয় করে ঘরে ফিরলেন উত্তর দিনাজপুরের আরও ১১ জন। সোমবার সন্ধ্যায় রায়গঞ্জের কোভিড হাসপাতাল থেকে ওই রোগীদের ছুটি দেওয়া হয়। সুস্থদের মধ্যে দুজন নার্স ও কোভিড হাসপাতালের একজন নার্সিং সুপারিনটেনডেন্ট রয়েছেন।

সন্ধ্যা ৬টা নাগাদ ফুলের তোড়া ও মিষ্টির প্যাকেট দিয়ে তাঁদের সংবর্ধনা জানায় কোভিড হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এরপর স্বাস্থ্য দপ্তরের গাড়ি করে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেন তাঁরা। কোভিড হাসপাতালের সুপারেনটেনডেন্ট দিলীপকুমার গুপ্তা বলেন, এদিন মোট ১১ জনকে সুস্থ করে বাড়ি ফেরানো হল। তাঁদের মধ্যে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজের নার্স ও কোভিড হাসপাতালের নার্সিং সুপারিনটেনডেন্ট রয়েছেন। এই মুহূর্তে ৫৪ জন করোনা আক্রান্ত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। আশা করছি তাঁরা দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠবে।

- Advertisement -

রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজের আইসোলেশন বিভাগে ডিউটিরত অবস্থায় রোগীদের সংস্পর্শে এসে দুজন নার্স সংক্রামিত হয়েছিলেন। তাঁদের কোভিড হাসপাতালে চিকিৎসা চলছিল। এদিন তাঁদের ছেড়ে দেওয়া হয়। তাঁদেরকে ১৪ দিন হোম কোয়ারান্টিনে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, কোভিড হাসপাতালে মোট ৫৪২ জন করোনা সংক্রামিত রোগী সুস্থ হয়েছেন। কোভিড হাসপাতালের নার্সিং সুপারিনটেনডেন্ট করোনা আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তিনি এদিন সুস্থ হয়ে ১৪ দিনের কোয়ারান্টিনে গেলেন।

কোভিড হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, নার্সিং সুপারিনটেনডেন্ট করোনা আক্রান্ত রোগীদের সেবা করতে গিয়ে সংক্রামিত হয়েছিলেন। এদিন সুস্থ হওয়ার পরেই কোভিড হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাঁকে আলাদাভাবে সংবর্ধনা দেওয়ার ব্যবস্থা করেন। নার্সিং সুপারিনটেনডেন্ট বাপি বিশ্বাস বলেন, ১৪ দিন পর ফের করোনা আক্রান্ত রোগীদের সেবায় নিয়োজিত হব। ‌জেলার মানুষকে বলব করোনায় কোনও আতঙ্ক নেই। আক্রান্ত হলেও সবাই সুস্থ হয়ে ওঠে। তবে সামাজিক দূরত্ব মানা, স্যানিটাইজার, মাস্ক-গ্লাভস পরে চললে করোনা সংক্রমণ থেকে কিছুটা হলেও রক্ষা পাওয়া যাবে।