শিলিগুড়িতে রেকর্ড সংক্রমণ, শহরে করোনা আক্রান্ত ১১২

462
ছবি: সূত্রধর

শিলিগুড়ি: শিলিগুড়িতে করোনা সংক্রমণ ভয়াবহ আকার নিয়েছে। কোনওভাবেই সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনা যাচ্ছে না। বৃহস্পতিবার শহরে নতুন করে ১১২ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। একদিনে সংক্রামিতের সংখ্যার নিরিখে যা রেকর্ড।

এদিকে, শিলিগিুড়ি পুরনিগমের ২৬ নম্বর ওয়ার্ডের বিদায়ী সিপিএম কাউন্সিলার তথা বর্তমান কো-অর্ডিনেটর দীপায়ন রায়ের শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। এদিন তাঁর লালার নমুনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। পাশাপাশি শহরের এক টেবিল টেনিস কোচ ও দমকলের দুই কর্মী করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তাঁদের কোভিড হাসপাতালে ভর্তির প্রক্রিয়া শুরু হচ্ছে।

- Advertisement -

বুধবার শিলিগুড়ি পুরনিগম এলাকায় একসঙ্গে ৮২ জনের শরীরে সংক্রমণ ধরা পড়েছিল। সেটা ছাপিয়ে গিয়েছে বৃহস্পতিবার। এদিন শিলিগুড়িতে রেকর্ড সংখ্যক ১১২ জন করোনা সংক্রামিতের হদিস মিলেছে। এর আগে কখনওই একদিনে এত সংখ্যক মানুষের শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েনি।

উল্লেখ্য, শহরে করোনা সংক্রামিতের সংখ্যা হু হু করে বাড়ছে। প্রায় প্রতিদিনই রেকর্ড সংখ্যক মানুষের শরীরে সংক্রমণ ধরা পড়েছে। আবার পরের দিনই সেই রেকর্ড ভেঙে যাচ্ছে। সামাজিক দূরত্ব ঠিকঠাক না মানার কারণেই শিলিগুড়িতে সংক্রমণ ভয়াবহ আকার নিয়েছে বলে মত বিশেষজ্ঞদের। লকডাউন শিথিল হওয়ার পর থেকেই শহরের বাসিন্দাদের মধ্যে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলা, মাস্ক পরা বা সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার ব্যাপারে উদাসীনতা লক্ষ্য করা যাচ্ছিল। শহরের বাজারগুলিতে প্রায় প্রতিদিনই উপচে পড়ছিল ভিড়। শহুরে বাসিন্দাদের মধ্যে সচেতনতার অভাবেই আজ করোনা মারাত্মক আকার নিয়েছে বলে দাবি বিশেষজ্ঞদের। সংক্রমণ রুখতে ইতিমধ্যেই বৃহস্পতিবার থেকে সাতদিনের পূর্ণাঙ্গ লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে শিলিগুড়িতে। এদিন সকাল ৯টা থেকে শিলিগুড়ি পুরনিগম এলাকায় লকডাউন কার্যকর হয়েছে।