করোনাজয়ী ১২ দিনের শিশু ও মাকে শুভেচ্ছা স্বাস্থ্যকর্মীদের

265

বিশ্বজিৎ সরকার, রায়গঞ্জ: নোভেল করোনা ভাইরাসকে জয় করল মাত্র ১২ দিন বয়সের এক নবজাত শিশু। সোমবার মিক্কিমেঘা কোভিড হাসপাতালে চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্যকর্মীরা তাকে নতুন জামা উপহার দিলেন। তার সঙ্গে করোনাজয়ী মাকেও উপহার দিলেন শাড়ি। সুস্থ হয়ে মায়ের কোলে চেপে হাসপাতাল থেকে বেরোনোর সময় শিশুটিকে করতালি ও ফুল দিয়ে অভিনন্দন জানালেন সকলে। তোয়ালে মোড়া ওই খুদের পক্ষে অবশ্যই এসবকিছু বোঝা অসম্ভব। গাঁদা ফুলের পাঁপড়ি ছিড়ে যখন অভিনন্দনের বন্যায় ভেসে যাওয়ার বদলে তখন সে চারপাশে হওয়া কোলাহল শুনে মুখ বেঁকিয়ে কাঁদতে ব্যস্ত।

রায়গঞ্জের মিক্কিমেঘা কোভিড হাসপাতালে ১২ দিনের একটি শিশু সুস্থ হয়ে উঠেছে। চিকিৎসক, নার্স, ফার্মাসিস্ট এবং ওয়ার্ডবয় ও ওয়ার্ড গার্লদের কুর্নিশ জানালেন রাজ্যের মন্ত্রী গোলাম রব্বানী। মন্ত্রীর বক্তব্য, ‘রায়গঞ্জের মিক্কিমেঘা কোভিড হাসপাতালের একের পর এক করোনা আক্রান্ত রোগী সুস্থ হওয়ার পেছনে রয়েছে চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী, ফার্মাসিস্টদের নিরলস পরিশ্রম।

- Advertisement -

কোভিড হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, অন্তঃসত্ত্বা ওই গৃহবধূ প্রসব বেদনা নিয়ে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হয়। এরপর লালারসের নমুনা নিলে, করোনা পজিটিভের রিপোর্ট মিলে ওই প্রসূতির। সদ্যোজাত সন্তান প্রসব করার পর ওই একরত্তি শিশুটিরও লালারসের নমুনা পরীক্ষা করা হয়।

করোনা রিপোর্ট পজিটিভ মিলতেই তড়িঘড়ি রায়গঞ্জের ছটপারুয়া এলাকায় অবস্থিত মিক্কিমেঘা কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এদিন সন্ধ্যে ছ’টার নাগাদ সুস্থ হয়ে স্বাস্থ্যদপ্তরের গাড়ি করে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। এই নজিরবিহীন ঘটনার জন্য চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী, নার্স, ফার্মাসিস্টদের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন স্বাস্থ্য দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য।