১৪ বছরের কিশোরীকে বিয়ের অভিযোগ, বিপাকে ৫০-এর পাক সাংসদ

105

ইসলামাবাদ: ১৪ বছরের এক কিশোরীকে বিয়ে করে বিপাকে পড়লেন বছর ৫০-এর পাকিস্তানের সাংসদ। অভিযোগটি উঠেছে বর্ষীয়ান সাংসদ মৌলানা সালাহুদ্দিন আইয়ুবির বিরুদ্ধে। ইতিমধ্যেই তাঁর বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

১৪ বছরের কিশোরীর সঙ্গে বিয়ের বিষয়টি মহিলা ও শিশু রক্ষা নিয়ে কাজ করা স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার নজরে আসে। এরপরই তা প্রকাশ্যে এনে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করেন তাঁরা। তদন্তের স্বার্থে কিশোরীর বাড়িতে পৌঁছায় পুলিশের আধিকারিকেরা। জিজ্ঞাসাবাদ করেন পরিবারের লোকজনদের। পরিবারের তরফে ঘটনাটি অস্বীকার করা হয়। তবে ওয়াকিবহাল মহলের একাংশের দাবি, ওই কিশোরীর সঙ্গে সাংসদের বিয়ে ঠিক হয়েছে। ১৬ বছর হওয়ার পরই তাঁদের বিয়ে দেওয়া হবে।

- Advertisement -

প্রসঙ্গত, পাকিস্তানে মেয়েদের ন্যূনতম বয়স ১৬ বছর। এই নিয়ম ভঙ্গ করে মেয়েদের বিয়ে দিলে পরিবারকেও শাস্তি দেওয়ার আইন রয়েছে।