হৃদয়ের জটিল অসুখে ভুগছে ১৪ বছরের ছাত্রী, সাহায্যের আবেদন পরিবারের

133

পারডুবি: মাথাভাঙ্গা ২ ব্লকের পারডুবি গ্রাম পঞ্চায়েতের পূর্ব পারডুবি সংলগ্ন এলাকার বাসিন্দা মিনা নবম শ্রেণীর ছাত্রী। কিন্তু হার্টের রোগের চিকিৎসায় জর্জরিত মিনার পড়াশোনা কতদূর এগোবে তা নিয়ে সংশয়ে মিনার পরিবার। বাধ্য হয়ে আর্থিক সাহায্যের জন্য সরকার বা সহৃদয় কোনও ব্যক্তির কাছে সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন পরিবার।

প্রায় দুবছর আগে হার্টের সমস্যা দেখা দেয় ১৪ বছরের মিনা নমোদাসের। আলিপুরদুয়ার ও কলকাতাতে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসা করানো হয়। সেখানে বিভিন্ন পরীক্ষার শেষে চিকিৎসকরা জানান, তাঁর হার্টের সমস্যা হয়েছে। জরুরি ভিত্তিতে অস্ত্রপচার প্রয়োজন। এরপরেই গত তিন চার মাস ধরে মিনার কিডনিতেও সমস্যা দেখা দেয় বলে জানান মা হমেশ্বরী নমদাস। বাবা অরফুল্ল নমদাস কৃষিকাজ করে কোনওরকমে সংসার চালান। মা হমেশ্বরী নমদাস জানান, মেয়েকে সাময়িক সুস্থ করে তুলতে গিয়ে তাঁদের জমি বিক্রি করে নিঃস্ব হতে হয়েছে। বর্তমানে মেয়ের চিকিৎসা করাতে হিমসিম খেতে হচ্ছে পরিবারটিকে। বাবা অরফুল্ল নমদাস মেয়ের চিকিৎাসার জন্য সকলের কাছে সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন।

- Advertisement -

মাথাভাঙ্গা ২ ব্লকের বিডিও উজ্জ্বল সর্দার জানান, ব্লকে যোগাযোগ করলে পরিবারটি যাতে সরকারি সহযোগিতা পায় সে বিষয়ে চেষ্টা করা হবে। পাশাপাশি মাথাভাঙ্গার মহকুমা শাসক অচিন্ত কুমার হাজরা জানান, রাজ্য সরকারের থেকে সাহায্যের সুযোগ রয়েছে। স্বাস্থ্য স্বাথী কার্ডের থেকে সহযোগিতা পেতে পারে। এছাড়াও রাজ্য সরকারের কাছে আবেদন করলে মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে সাহায্য পাওয়া যায়।