বিক্ষোভের জের, ১৬ জন পুলিশকর্মীকে উত্তরবঙ্গে বদলি

374
File Photo

বিশেষ সংবাদদাতা, কলকাতা,  ২০ জুন :আলিপুরে পুলিশ ট্রেনিং স্কুলে বিক্ষোভের জেরে কলকাতা পুলিশ থেকে বদলি অব্যাহত এখনও। এর আগে বিক্ষোভ প্রদর্শনকারী পুলিশকর্মীদের ১৩ জনকে উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় পাঠানো হয়েছিল। দ্বিতীয় পর্যায়ে পুলিশ ট্রেনিং স্কুলের ২৫ জনকে কলকাতা পুলিশেরই বিভিন্ন ডিভিশনে বদলি করা হয়। এবার আরও ১৬ জন কনস্টেবলকে উত্তরবঙ্গে বদলি করা হয়েছে। একই ফোর্সের কনস্টেবলদের এক থানায় বদলি করা হয়নি, যাতে তাঁরা জোট বাঁধতে না পারেন। একের পর এক এরকম বদলিতে পুলিশ মহলে ক্ষোভ ছড়াচ্ছে। এই বদলিকে প্রতিশোধপরায়ণ বলে মনে করছেন তাঁরা। পুলিশ কর্তারা অবশ্য দাবি করছেন, সবই রুটিন বদলি।

শুক্রবার রাতে নতুন যে বদলির আদেশ প্রকাশিত হয়েছে, তাতে কমব্যাট ফোর্সের ৯ জন বদলি হয়েছেন। তিলক দে-কে পাঠানো হয়েছে রায়গঞ্জ পুলিশ জেলায়। তাপস সরকারকে দক্ষিণ দিনাজপুর, প্রশান্ত রায়কে দার্জিলিং, সোহেল রানাকে কালিম্পং, উজ্জ্বল পালকে আলিপুরদুয়ার, সৌমেন কুইল্যাকে ইসলামপুর পুলিশ জেলায়, সুধাময় মণ্ডলকে দক্ষিণ দিনাজপুর, অ্যান্টনি ওঁরাওকে রায়গঞ্জ পুলিশ জেলায় ও পবিত্র ঘোষকে দক্ষিণ দিনাজপুরে পাঠানো হয়েছে। বিপর্যয় মোকাবিলা গ্রুপের ৬ জনকে বদলি করা হয়েছে। এরমধ্যে অশোক কুমার দারাকে ইসলামপুর পুলিশ জেলা, মহম্মদ জহুর আলি শেখকে দার্জিলিং, কৃশানু মাইতিকে রায়গঞ্জ পুলিশ জেলা, অনুপম সিংকে ইসলামপুর, কৃষ্ণপদ মুদিকে জলপাইগুড়ি, রজার ফিপনকে কোচবিহারে পাঠানো হয়েছে। স্পেশাল ব্রাঞ্চের পল্লব চৌধুরীকে কালিম্পংয়ে বদলি করা হয়েছে।

- Advertisement -

শুক্রবার রাতে রাজ্য পুলিশের কিছু শীর্ষপদেও রদবদল করা হয়েছে। রাজ্য পুলিশের এডিজি (ট্রেনিং) সৌমেন মিত্রকে অতিরিক্ত দায়িত্ব হিসেবে রাজ্য বিদ্যুৎ বণ্টন সংস্থার সিকিউরিটি অ্যান্ড ভিজিলেন্স বিভাগের পরামর্শদাতা নিযুক্ত করা হয়েছে। রাজ্য পুলিশের টেলিকমিউনিকেশন দপ্তরের পুলিশ সুপার গাঞ্জি অনিল শ্রীনিবাসকে পুলিশ রেগুলেশনস অ্যান্ড ম্যানুয়েল বিভাগের পুলিশ সুপার পদে বদলি করা হয়েছে। আইজি (আইবি) তমাল বসুকে আইজি (ওয়েলফেয়ার) পদে পাঠানো হয়েছে। তাঁর জায়গায় দাযিত্ব নেবেন আইজি অর্গানাইজেশন কল্লোল গনাই। আইজি আইবি (বর্ডার) দেবাশিস বড়ালকে সশস্ত্র পুলিশের আইজি করা হয়েছে। রাজ্য সশস্ত্র পুলিশের ষষ্ঠ ব্যাটালিয়নের কমান্ডিং অফিসার মৃণাল মজুমদারকে টেলিকমিউনিকেশন দপ্তরের পুলিশ সুপার করা হয়েছে। এনভিএফ-এর স্টেট কমান্ডান্ট চন্দ্রশেখর বর্ধনকে ষষ্ঠ ব্যাটালিয়নে পাঠানো হয়েছে। রাজ্য সশস্ত্র পুলিশের প্রথম ব্যাটালিয়নের কমান্ডিং অফিসার দেবাশিস ধরকে উত্তর দিনাজপুরে চতুর্থ ব্যাটালিয়নে পাঠানো হয়েছে। আসানসোল-দুর্গাপুর পুলিশ কমিশনারেটের ডিসি এসবি কুমার গৌতমকে প্রথম ব্যাটালিয়নের সিও করা হয়েছে। চতুর্থ ব্যাটালিয়নের বর্তমান সিও দেবশ্রী চট্টোপাধ্যায়কে ডাবগ্রামে দ্বাদশ ব্যাটালিয়নে পাঠানো হয়েছে।