জোরহাট, ১০ নভেম্বরঃ সরকারি হাসপাতালে ন’দিনে মৃত্যু হল অন্তত ১৮জন সদ্যোজাতের। অসমের জোরহাট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ঘটনা। বিষয়টি তদন্ত করতে ৬ সদস্যের কমিটি গঠন করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। শনিবার হাসপাতাল পরিদর্শনে যাবে ইউনিসেফ।

হাসপাতালের সুপারিনটেনডেন্ট দেবজিৎ হাজারিকা শিশুমৃত্যুর ঘটনা স্বীকার করে নিয়েছেন। তবে শিশু মৃত্যুর কারণ জানা যায়নি। সূত্রের খবর, চলতি মাসের প্রথম দিন থেকেই শিশুমৃত্যু ঘটতে থাকে। মৃত শিশুরা হাসপাতালের স্পেশাল কেয়ার নিউবর্ন ইউনিটেই ছিল।
হাসপাতালের তরফে প্রকাশিত প্রাথমিক রিপোর্টে বলা হয়েছে, পর্যাপ্ত ওজনের থেকে কম ওজন হওয়ায় দশটি শিশুর মৃত্যু হয়। বাকি তিন জনের মৃত্যু হয়েছে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে।