অসমে পাচারের আগে উদ্ধার ৩৫টি গোরু, গ্রেপ্তার ২

0
293
- Advertisement -

ফাঁসিদেওয়া: পাচারের আগে ৩৫টি গোরু সহ গ্রেপ্তার হল দু’জন। শনিবার ফাঁসিদেওয়া ব্লকের মুরালীগঞ্জ চেকপোস্ট এলাকায় নাকা তল্লাশি চালিয়ে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করেছে বিধাননগর তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ।

পুলিশের কাছে খবর আসে লরিতে বোঝাই করে গোরু পাচারের উদ্দেশ্যে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। সেই খবর মোতাবেক তল্লাশি অভিযানে নামে পুলিশ। সেই সময় পুলিশ সন্দেহভাজন একটি লরি আটক করে তল্লাশি চালাতেই উদ্ধার হয় প্রচুর সংখ্যক গোরু। লরির চালক এবং খালাসির কাছে ওই গোরু নিয়ে যাওয়ার জন্য কোনও বৈধ নথি ছিল না। অভিযুক্তদের এবং গোরু বোঝাই লরিটিকে আটক করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে ধৃতরা জানিয়েছে, তারা গোরু উত্তরপ্রদেশ থেকে অসমে পাচারের উদ্দেশ্যে নিয়ে যাচ্ছিল। এরপরই পুলিশ অভিযুক্ত লরির চালক এবং খালাসিকে গ্রেপ্তার করে। ধৃত ইমাদুল্লা শেখ (২৫) এবং নাজির আলি (২৫) উভয়েই অসমের বাসিন্দা। পুলিশ পাচারের ব্যবহৃত লরিটিকে বাজেয়াপ্ত করেছে। পাশাপাশি, উদ্ধার হওয়া গোরু সরকারি খোয়ারে পাঠানো হয়েছে। পুলিশের অনুমান উদ্ধার হওয়া গোরুর বাজার মূল্য ৭ লক্ষাধিক। এদিন ধৃতদের ৫ দিনের পুলিশি হেপাজতের আর্জি জানিয়ে শিলিগুড়ি মহকুমা আদালতে তোলা হয়েছে।

সম্প্রতি ফাঁসিদেওয়া থানা এবং ঘোষপুকুর ফাঁড়ির পুলিশ গোরু সমেত একাধিক গোরু পাচারকারীদের গ্রেপ্তার করেছে৷ অন্যদিকে, এই পাচারচক্রে আর কেউ জড়িত কিনা, সে বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

- Advertisement -