অবৈধভাবে রেশনের আটা মজুত রাখার অভিযোগ, ধৃত ২

307

বর্ধমান, ১৮ ফেব্রুয়ারিঃ অবৈধভাবে রেশনের আটা গোডাউনে মজুত রাখার অভিযোগে দুজনকে গ্রেপ্তার করল দুর্নীতি দমন শাখা। সোমবার সন্ধ্যায় দুর্নীতি দমন শাখার একটি দল পূর্ব বর্ধমানের জামালপুর থানার হালাড়া গ্রামের দুটি গোডাউনে হানা দেয়। সেখান থেকে রেশনের প্রচুর আটার প্যাকেট মেলে। এরপরেই পাচারের উদ্দেশ্যে অবৈধভাবে গাডাউনে আটা মজুত রাখার অভিযোগে শেখ মহিরুদ্দিন ও শঙ্কর ঘোষ নামে দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। ধৃত দুজনেরই বাড়ি হালাড়া গ্রামে। বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে গোডাউনে মজুত রেশনের সমস্ত আটা। মঙ্গলবার ধৃতদের বর্ধমান আদালতে পেশ করা হয়। বিচারক ধৃতদের জামিন নামঞ্জুর করে বিচার বিভাগীয় হেপাজতে রাখার নির্দেশ দেন।

দুর্নীতি দমন শাখা সূত্রে জানা গিয়েছে, হালাড়া গ্রামের দুটি গোডাউনে অবৈধভাবে রেশনের আটা মজুত রাখার খবর দপ্তরে পৌঁছায়। গতকাল অভিযান চালিয়ে শঙ্করের গোডাউন থেকে ৫০ কেজির ৮০টি বস্তা, ৯৫০ গ্রামের ১২০ প্যাকেট, ৪৭৫ গ্রামের ১৬০টি প্যাকেট ও ৪৭টি খোলা প্যাকেট আটা উদ্ধার হয়েছে। পরে ধৃত মহিরুদ্দিনের গোডাউন থেকে ৫০ কেজির ১২০টি বস্তা, ৯৫০ গ্রামের ৭০টি প্যাকেট ও ৪৭৫ গ্রামের ২৫০টি আটার প্যাকেট উদ্ধার হয়েছে। দুর্নীতি দমন শাখার আধিকারিকদের দাবি, বাজেয়াপ্ত করা সমস্ত আটার পরিমাণ ১০ টন ৩ কুইন্ট্যাল ৮০ কেজি।

- Advertisement -