গেরুয়া শিবির থেকে ঘাসফুলে যোগ দুই পঞ্চায়েত সদস্যের

1730

কালচিনি: সোমবার আলিপুরদুয়ারে গেরুয়া শিবির থেকে ঘাসফুলে যোগ দিলেন দুই পঞ্চায়েত সদস্য। পাশাপাশি আদিবাসী বিকাশ পরিষদের এক সময়ের সক্রিয় নেতা ও বিজেপির ৯ নম্বর মণ্ডলের প্রাক্তন সভাপতি সন্দীপ এক্কা সদলবলে বিজেপি ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিলেন।

এছাড়াও কালচিনি ব্লকের মেন্দাবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েতের বিজেপি সদস্য ইন্দু রায় ও সাতালি গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্য দুলাল রায় তাঁদের অনুগামীদের নিয়ে তৃণমূল শিবিরে নাম লেখালেন। সোমবার আলিপুরদুয়ারে তৃণমূলের জেলা কার্যালয়ে বিজেপির থেকে আসা নেতাদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দিয়ে দলে স্বাগত জানান দলের জেলা সভাপতি মৃদুল গোস্বামী, বিধায়ক সৌরভ চক্রবর্তী ও দলের জেলা কো-অর্ডিনেটর পাসাং লামা।

- Advertisement -

সন্দীপ এক্কা, ইন্দু রায় ও দুলাল রায় জানান, বিজেপি যেভাবে সাম্প্রদায়িক বিষ ছড়াচ্ছে, তাতে বিজেপিতে থেকে নিজেদের ভাবমূর্তি ক্রমশ খারাপ হচ্ছিল। এছাড়াও কোভিড বিপর্যয়ে দুঃস্থদের র‌্যাশন বণ্টন নিয়ে ব্যাপক দুর্নীতি চলছে। সেই কারণেই বিজেপি ছেড়ে তাঁরা তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। বিজেপির ৯ নম্বর মণ্ডল সভাপতি প্রদীপ কুজুর বলেন, দল থেকে কে তৃণমূলে গিয়েছেন, সে বিষয়ে কোনও তথ্য জানা নেই।

গেরুয়া শিবির থেকে ঘাসফুলে যোগ দুই পঞ্চায়েত সদস্যের| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India

প্রসঙ্গত, আদিবাসী বিকাশ পরিষদ যে সময় সমগ্র ডুয়ার্সে আন্দোলন ছড়িয়ে দিয়েছিল, সেইসময় বর্তমান সাংসদ জন বারলা, রাজু বরা, রাজেশ লাকড়ার সঙ্গে একই সারণীর নেতা হিসাবে ডুয়ার্সের চা বলয়ে ব্যাপক জনপ্রিয় হয়েছিলেন সন্দীপ এক্কা। পরে জন বারলার সঙ্গে সন্দীপবাবু বিজেপিতে যোগদান করেন। সূত্রের খবর, কিছুদিন থেকে সন্দীপবাবু ও তাঁর অনুগামীদের সঙ্গে দলের নানা বিষয়ে মতানৈক্য চলছিল।

তৃণমূলের দলীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচনে কালচিনি ব্লকের মত চা বলয়ে আদিবাসী সম্প্রদায়ের ভোট টানতে সন্দীপ এক্কার মত চা বলয়ের নেতার প্রয়োজনীয়তা ছিল। সন্দীপ এক্কা ও তাঁর অনুগামীদের তৃণমূলে আনার নেপথ্যে দলের জেলা কো-অর্ডিনেটর পাসাং লামার বড় ভূমিকা রয়েছে বলে মনে করছেন দলের একাংশ।

পাসাং লামা বলেন, সন্দীপ এক্কা সহ বিজেপির এক ঝাঁক নবীন প্রজন্মের নেতা তৃণমূলে যোগ দেওয়ায় কালচিনির চা বলয়ে দল একধাপে অনেকটাই শক্তি বাড়াল। তিনি আরও বলেন, সন্দীপবাবু একজন দক্ষ সংগঠক। এছাড়াও ইন্দু রায়, দুলাল রায়রা দলে যোগদান করায় নির্বাচনের আগে দল কালচিনি ব্লকে শক্তিশালী হল তৃণমূল। সন্দীপ এক্কা বলেন, কলকাতায় মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে দলের বিস্তার নিয়ে বিশদে আলোচনা করব।