ধূপগুড়ি, ৬ মেঃ বিয়ের ১১ দিনের মাথায় নববধূ ও দেওরের রহস্যমৃত্যু ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে ধূপগুড়িতে। স্থানীয় সূত্রে খবর, সোমবার ধূপগুড়ির আলতাগ্রাম এলাকায় ট্রেনের ধাক্কায় মৃত্যু হয়েছে দুজনের।

জানা গিয়েছে, গত কয়েকদিন আগে ভেমটিয়া এলাকার বাসিন্দা মুক্তা পারভিনের সঙ্গে যমপাড়ার মমিনুরের বিয়ে হয়। তবে অভিযোগ উঠেছে, মোহর হওয়ার পর থেকেই দেওরের সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা শুরু হয় পারভিনের। কিন্তু কেউই বিষয়টি পরিবারকে জানায়নি। এরপর মমিনুরের সঙ্গে বিয়েও হয়ে যায় পারভিনের। বিয়ের পর সম্প্রতি নববধূ বাপের বাড়িতে যায়। এরপর এদিন রেললাইন থেকে পারভিন ও তার দেওরের মৃতদেহ উদ্ধার হয়। ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে মৃতদেহ দুটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায়। তারা আত্মহত্যা করেছে বলে প্রাথমিকভাবে মনে করছে পুলিশ। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।