গাঁজা সহ গ্রেপ্তার উপপ্রধানের ছেলে

286

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান: গাঁজা পাচারের সময় তৃনমুলের উপপ্রধানের ছেলে সহ ২ যুবককে হাতেনাতে পাকড়াও করল পুলিশ। বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে গাঁচা পাচারে ব্যবহৃত একটি গাড়ি। শনিবার বিকেলে টহলদারির সময়ে পূর্ব বর্ধমানের দেওয়ানদিঘী থানার পুলিশ কুড়মুন হাইস্কুল মোড়ের কাছে একটি মারুতি গাড়ির পথ আটকায়। তল্লাশির পর গাড়ির ভেতরে থাকা বস্তা থেকে উদ্ধার হয় ১১ কেজি ৫০০ গ্রাম গাঁজা। পুলিশের দাবি গাঁজা পাচারে জড়িত থাকার কথা ধৃতরা স্বীকার করেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, ধৃতদের নাম জাহাঙ্গীর আলম ও লিয়াকত আলি শেখ। মঙ্গলকোটের গীধগ্রামে বাড়ি লিয়াকতের। অপর ধৃত জাহাঙ্গীর আলমের বাড়ি কোচবিহারের দিনহাটায়। লিয়াকতের বাবা কাশেম আলি শেখ গীধগ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান। লিয়ায়ক নেতাজী মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইংরেজি অনার্স নিয়ে পড়াশুনা করে। একই বিশ্ববিদ্যালয়ে কমার্স নিয়ে পড়াশুনা করে জাহাঙ্গীর।

- Advertisement -

লিয়াকত বর্ধমান শহরে বাড়ি ভাড়া নিয়ে থাকে। রবিবার দুই ধৃতকে পেশ করা হয় বর্ধমান আদালতে। ধৃতদের মধ্যে জাহাঙ্গীরকে ৭ দিন পুলিশি হেপাজতে নেবার আবেদন আদালতে জানায় তদন্তকারী অফিসার। সিজেএম মণিকা চট্টোপাধ্যায় (সাহা) জাহাঙ্গীরকে ৫ দিন পুলিশ হেপাজত এবং লিয়াকতকে জেল হেপাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

ধৃতকে হেপাজতে নিয়ে পুলিশ খতিয়ে দেখছে, গাঁজা কোথায় কোথায় পাচার করা হত এবং গাঁজা পাচারে আরও কারা কারা জড়িত রয়েছে। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান কোচবিহার থেকে গাঁজা এনে ধৃতরা বিভিন্ন জায়গায় পাচার করতো।