বজ্রাঘাতে মৃত ২, আহত ৪

129

দেবদুলাল সাহা, হরিশ্চন্দ্রপুর: বজ্রাঘাতে মৃত্যু হল দুই মহিলার। আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরও ৫ জন। আহতদের মধ্যে ১ জন পুরুষ ছাড়া বাকি ৪ জনই মহিলা। রবিবার দুপুরে মালদা জেলার হরিশ্চন্দ্রপুর থানার দৌলতনগর এলাকায় ঘটনাটি ঘটেছে। পঞ্চায়েত সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃতরা হলেন সীমা মন্ডল (৩৩) ও মঞ্জু মন্ডল (২৬) এছাড়াও আহত হয়েছেন হরিবোল মন্ডল, উর্মিলা ঘোষ, নির্মলা ঘোষ, রোহিলা মন্ডল ও জয়া মন্ডল। এদের সকলের বাড়ি দৌলতনগর এলাকায়। আহতদের মধ্যে রোহিলা মন্ডলের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাঁকে ভালুকা হাসপাতাল থেকে চাঁচল মহকুমা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয় বাকি ৪ জন ভালুকা হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এখন বর্ষার মরশুমে মাঠে আমন ধানের রোওয়ার কাজ চলছে। রবিবার সকালেই সীমা ও মঞ্জু মন্ডল নামে দুই মহিলা শ্রমিক অন্যান্য প্রতিবেশী শ্রমিকদের সঙ্গে নিয়ে ওই এলাকার এক চাষীর জমিতে ধানরোপণের জন্য কাজে যোগ দেন। দুপুর দেড়টা নাগাদ প্রবল বজ্রবিদ্যুৎ সহ মুষলধারে বৃষ্টি পড়তে শুরু করলে তড়িঘড়ি করে কাজ সেরে দলবেঁধে বাড়ির উদ্যেশ্যে রওনা দেন। পথের মধ্যেই আচমকা বাজ পড়লে ঘটনাস্থলে ২ জন মারা যান। বাকিরা গুরুতর ভাবে জখম হন।

- Advertisement -

বজ্রপাতে দুই মহিলা শ্রমিকের মৃত্যুর খবর জানাজানি হতেই স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। আহতদের উদ্ধার করে নিকটবর্তী ভালুকা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসা হয়। একজনের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় তাঁকে চাঁচল মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য রেফার করা হয় । বাকিদের ভালুকা হাসপাতালে চিকিৎসা চলছে।

এ প্রসঙ্গে দৌলতনগর গ্রামপঞ্চায়েতের প্রধান নজিবুর রহমান জানান, ‘রবিবার দুপুরে দৌলতনগরের যে দু’জন মহিলা শ্রমিক বজ্রাঘাতে মারা গিয়েছেন তাঁদেরকে পঞ্চায়েতের তরফে সাধ্যমতো সবরকমভাবে সরকারি সাহায্য দেওয়া হবে । মৃতরা সকলে দুস্থ । পেটের টানে তাঁরা এই বর্ষার মধ্যে রোদ বৃষ্টি নিয়ে মাঠে কাজ করতে যায়। অনেকে মাঠে কাজ করতে গিয়ে বজ্রাঘাতে মৃত্যুর শিকার হচ্ছেন। আমরা মৃতদের শোকস্তব্ধ পরিবারের পাশে আছি।

অন্যদিকে,হরিশ্চন্দ্রপুর থানার আইসি সঞ্জয় কুমার দাস জানান, ‘রবিবার দুপুরে দৌলতনগর এলাকায় বাজ পড়ে দুই মহিলার মৃত্যু হয়েছে। বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়েছে । তারা ঘটনাটি দেখছেন।