লাদাখে চিনা সেনা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে শহিদ ২০ ভারতীয় জওয়ান: সংবাদ সূত্র

565

লাদাখে: সোমবার রাতে পূর্ব লাদাখের গালওয়ান ভ্যালিতে চিনা সেনাবাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে কমপক্ষে ২০ জন ভারতীয় জওয়ান শহিদ হয়েছেন। মঙ্গলবার রাতে সংবাদ সংস্থা এএনআই-এর তরফে টুইটে এমনটাই জানানো হয়েছে। পাশাপাশি সেই সংঘর্ষে ৪৩ জন চিনা সেনাও হতাহত হয়েছেন বলে সংবাদ সংস্থা সূত্রের খবর।

সেনাবাহিনীর তরফে মঙ্গলবার দুপুরে প্রাথমিকভাবে জানানো হয়েছিল, সোমবার রাতে গালওয়ান ভ্যালিতে চিনা সেনার সঙ্গে সংঘর্ষে তিন ভারতীয় জওয়ানের মৃত্যু হয়েছে। উত্তেজনা সামাল দিতে দুই দেশের সেনা আধিকারিকরা স্থানীয় স্তরে আলাপ আলোচনা করেছেন।

- Advertisement -

সংঘর্ষে বেশ কয়েকজন চিনা সেনাও হতাহত হয়ে থাকতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছিল। এএনআই-এর টুইটে দাবি করা হয়েছে, সংঘর্ষে কমপক্ষে ২০ জন ভারতীয় জওয়ান শহিদ হয়েছেন। ৪৩ জন চিনা সেনা হতাহত হয়েছেন। অন্যদিকে, সংঘর্ষ পরবর্তী সময়ে ভারত যাতে একতরফাভাবে কোনও পদক্ষেপ না করে সে হুমকিও দিয়েছে চিন।

উল্লেখ্য, প্রায় দেড় মাস ধরে পূর্ব লাদাখে ভারত-চিন সীমান্তে উত্তেজনা চলছে। দুই দেশই সীমান্তে প্রচুর সংখ্যক সেনা মোতায়েন করছে। লাইন অফ অ্যাকচুয়াল কন্ট্রোল বা প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা পেরিয়ে বারবার ভারত ভূখন্ডে ঢুকে পড়ার অভিযোগ উঠেছে চিনা সেনার বিরুদ্ধে। ৫ মে প্যাংগং লেকের কাছে ভারতীয় ও চিনা সেনার মধ্যে হাতাহাতি হয়। স্থানীয়ভাবে ঝামেলা মেটানোর চেষ্টা করা হলেও, কোনও লাভ হয়নি।

লাদাখে ভারত-চিন সীমান্তে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলে কয়েকদিন আগে জানিয়েছিলেন সেনাবাহিনীর প্রধান মনোজ মুকুন্দ নারাভানে। সেনাপ্রধান বলেছিলেন, ‘ভারত-চিন সীমান্তে পরিস্থিতি পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।’ কিন্তু তারপর সোমবার রাতে যেভাবে লাদাখের গালিয়ান ভ্যালিতে চিনা সেনাবাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষ হল, তাতে লাদাখের পরিস্থিতি কতটা নিয়ন্ত্রণে রয়েছে সেই প্রশ্ন উঠছে।