অসমে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, মৃত বেড়ে ২৪, ক্ষতিগ্রস্ত ১৩ লক্ষ

267

দিসপুর: একদিকে করোনা অন্যদিকে বন্যায় জেরবার অবস্থা অসমে। টানা বৃষ্টি ও বন্যায় ক্রমশ অবনতি হচ্ছে অসমের বন্যা পরিস্থিতির। সরকারি হিসেব অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত রাজ্যের ৩৩টি জেলার মধ্যে ২৫টি জেলায় বন্যার জল ঢুকে ক্ষতি হয়েছে প্রায় ১৩ লক্ষ মানুষের। বন্যায় মৃত্যু হয়েছে ২৪ জনের। তাঁদের মধ্যে ডিব্রুগড়ে দু’জন, বরপেটায় একজন এবং গোয়ালপাড়ায় একজনের মৃত্যু হয়েছে।

অসম স্টেট ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট অথরিটির তরফে জানানো হয়েছে, বরাক উপত্যকা বাদে ৭২টি রেভিনিউ সার্কেলের ২,৪০২টি গ্রাম বন্যায় বিপর্যস্ত। সবথেকে বেশি ক্ষতি হয়েছে বরপেটা, দক্ষিণ শালমারা এবং নলবাড়িতে। রাজ্যের ৮৩,১৬৮ হেক্টর জমির ফসল নষ্ট হয়েছে। ১২ জেলার ২৭৩টি ত্রাণ শিবিরে ২৭,৫০০ জন আশ্রয় নিয়েছেন। ক্ষতি হয়েছে গবাদি পশুরও।

- Advertisement -

ইতিমধ্যেই রাজ্য বিপর্যয় মোকাবিলা দল, জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী এবং জেলা প্রশাসনের তরফে বন্যা দুর্গত এলাকায় ত্রাণ পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা চলছে।

রবিবার এই নিয়ে অসমের মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনওয়ালের সঙ্গে কথা বলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শা। তাঁকে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধি ঠেকানোর পাশাপাশি বন্যা দুর্গতদের নিরাপদ স্থানে নিয়ে আসা হয়েছে। সমস্ত জায়গায় সরকারি বিধিনিষেধ মেনেই কাজ করার চেষ্টা চলছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীও মুখ্যমন্ত্রীকে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে সবরকম সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন।