২৪তম বর্ষে পা দিল গাজোলের রাস উৎসব

91

গাজোল: শুক্রবার থেকে গাজোল হাইস্কুল ময়দানে শুরু হতে চলেছে গাজোল রাস উৎসব ও মেলা। উৎসবকে কেন্দ্র করে চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি। আগামী ১৯ নভেম্বর থেকে রাস উৎসব শুরু চলবে ২৯ নভেম্বর পর্যন্ত। রাস উৎসবকে জাঁকজমক পূর্ণ করার জন্য নেওয়া হয়েছে বিভিন্ন পদক্ষেপ। বিদ্রোহী মোড় থেকে গাজোল বাস স্ট্যান্ড পর্যন্ত ৫১২ নম্বর জাতীয় সড়ক এবং গাজোল আলাল রোডের বেশ কিছু অংশ মুড়ে ফেলা হয়েছে রঙিন আলোকমালায়। ৫১২ নম্বর জাতীয় সড়কে তৈরি হয়েছে আলোকসজ্জার জন্য বিশাল দুটি তোরণ। মেলায় অংশগ্রহণ করার জন্য বিভিন্ন জায়গা থেকে ইতিমধ্যেই চলে এসেছে নানা ধরনের দোকান। হাই স্কুল মাঠে মূলমঞ্চের পেছন দিকে থাকছে অস্থায়ী মণ্ডপ এবং রাস মঞ্চ। করোনাবিধি মেনে দর্শকদের বসার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

গাজোল সর্বজনীন রাস কমিটির সম্পাদক বিধান রায় জানান, এবার গাজোলের রাস উৎসব পা দিল ২৪তম বর্ষে। গতবছর করোনা পরিস্থিতির জন্য জাঁকজমকভাবে রাস উৎসব পালন করা সম্ভব হয়নি। তবে এবার মোটামুটি ভালোভাবেই রাস উৎসব পালন করার জন্য প্রস্তুতি নিয়েছি আমরা। আমাদের এবারের বাজেট প্রায় ১২ লক্ষ টাকা। ১২ দিন ধরে চলা রাস উৎসবের দুদিন থাকছে গীতা পাঠ, ভাগবত পাঠ এবং নাম সংকীর্তন। দুদিন থাকছে পদাবলী কীর্তন। বাকি ৮ দিন ধরে চলবে নানা ধরনের অনুষ্ঠান। শুক্রবার বিকেলে কলস যাত্রার মধ্য দিয়ে আমাদের রাস উৎসবের সূচনা হবে। এরপর থাকছে চক্র পূজা, অধিবাস, গীতা পাঠ, ভাগবত পাঠ এবং নাম সংকীর্তন। রাস উৎসব উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে থাকছে বাউলগান, কবিগান, লোকগান, আধুনিক গান, দুদিন যাত্রানুষ্ঠান সহ বিভিন্ন ধরণের মনোজ্ঞ অনুষ্ঠান। উত্তরবঙ্গ এবং দক্ষিণবঙ্গের প্রথিতযশা শিল্পীরা এই অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন।

- Advertisement -

এছাড়া থাকছে বৃন্দাবনের শিল্পীদের দ্বারা মনোজ্ঞ নৃত্যানুষ্ঠান। ২৯ নভেম্বর সন্ধ্যেবেলা অনুষ্ঠিত হবে রাস উৎসবের অন্যতম আকর্ষণ জীবন্ত ট্যাবলো প্রতিযোগিতা। প্রতিবছরই বিভিন্ন এলাকা থেকে হাজার হাজার মানুষ রাস উৎসবে অংশ নিয়ে থাকেন। এবারও তার ব্যতিক্রম হবে না। রাস উৎসবকে সফল করে তোলার জন্য সমস্ত মানুষের কাছে সহযোগিতা চাইছি। অনেক মানুষ ইতিমধ্যেই সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। সকলের সহযোগিতা এবং অংশগ্রহণের মধ্য দিয়েই এবারও সুষ্ঠুভাবে পালিত হবে রাস উৎসব এই আশা আমরা রাখছি। আগামী বছর রাস উৎসবের রজতজয়ন্তী। সেই অনুযায়ী আগামী বছর আরও বড় করে উৎসব পালন হবে গাজোলে। এই বছরের রাস উৎসব শেষ হলেই আগামী বছরের প্রস্তুতি শুরু করে দেব আমরা।