সংশোধনাগারে চোখ রাঙাচ্ছে করোনা, প্যারোলে মুক্তি ২৫ বন্দির

118

রায়গঞ্জ: জেলা সংশোধনাগারে একযোগে ৮৪ জন বন্দির করোনা আক্রান্ত হওয়ায় সমস্যায় পড়েছে কর্তৃপক্ষ। আক্রান্ত বন্দিদের দুটি ঘরে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। অন্যদিকে, মুক্ত সংশোধনাগারে ২৫ জনের মধ্যে মাত্র একজন আক্রান্ত হয়েছেন। এই পরিস্থিতিতে মুক্ত সংশোধনাগারের বন্দিদের তিন মাসের জন্য প্যারোলে মুক্তি দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। সেই নির্দেশ পাওয়ার পরই বুধবারই তারা বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছে। সংশোধনাগারের সুপার রাজেশ মণ্ডল জানিয়েছেন, করোনায় আক্রান্ত বন্দিরা প্রত্যেকেই ভালো আছে। ছ’জন জেল কর্মী আক্রান্ত হয়েছিলেন তাঁরাও সুস্থ হয়ে উঠছেন।

জানা গেছে রাজ্য কারা দপ্তরের নির্দেশে উত্তর দিনাজপুর জেলা সংশোধনাগারের বন্দিদের করোনা পরীক্ষা করানো হয়। মোট ২৯০ জন বিচারধীন বন্দির মধ্যে ৮০ জন পুরুষ এবং ৪ জন মহিলার শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে। উল্লেখ্য, ১৮ মে ‘উত্তরবঙ্গ সংবাদ’-এ প্রকাশিত হয়েছিল সংশোধনাগারে জেল কর্মী সহ ৮০ জন করোনা আক্রান্ত। এরপরেই নড়েচড়ে বসে জেল কর্তৃপক্ষ। রায়গঞ্জ জেলা সংশোধনাগারে বিচারাধীন বন্দিদের স্বাস্থ্যবিধির তোয়াক্কা না করে কার্যত একসঙ্গেই ছোট্ট পরিসরে দিনরাত কাটাতে হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছিল। এর ফলে যেকোনও মুহূর্তে সংক্রামিতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা দেখা দেয়। যদিও পরিস্থিতি বিবেচনা করে জেল কর্তৃপক্ষ পদক্ষেপ নেওয়ায়, আপাতত সব মহলই স্বস্তিতে রয়েছে।

- Advertisement -