লকডাউন ভাঙ্গায় গ্রেপ্তার ২৬

270

সামসী: লকডাউন ভঙ্গ করায় বুধবার চাঁচলের বিভিন্ন এলাকা থেকে মোট ২৬ জনকে গ্রেপ্তার করেছে চাঁচল থানার পুলিশ। চাঁচল থানার আইসি সুকুমার ঘোষ বলেন, লকডাউন উপেক্ষা করে কেউ চায়ের দোকানে আড্ডা মারছিলেন, কেউ আবার সবজি ও মুদির দোকান খুলেছিলেন। এদের সকলের বিরুদ্ধে বিপর্যয় মোকাবিলা আইন অনুযায়ী মামলা করা হবে।

লকডাউন শুরু থেকেই হেলমেটহীন বাইক আরোহীরা দাপিয়ে বেড়াচ্ছে। এদিকে পুলিশের হাত থেকে বাঁচার জন্য মাস্ককেই হাতিয়ার করে চলেছেন বহু মানুষ। তবে মাস্ক কী পথ নিরাপত্তার বিকল্প উপায়। সেভ ড্রাইভ সেফ লাইফ মাস্ক আওতাধীন নয়। তবে বাইক আরোহীদের পুলিশ পাকড়াও করছেন না এমনটা কিন্তু নয়। যদিও হেলমেট না পরে দাপিয়ে রাফ ড্রাইভ করা বাইক চালকদের দাপটে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন চাঁচলের আপামর জনসাধারণ। পুলিশ-প্রশাসন মাস্কের সঙ্গে হেলমেটের দিকটাও দেখুক দাবি একাংশ বাসিন্দাদের।

- Advertisement -

করোনা মহামারীতে মাস্ক পরা বাধ‍্যতামূলক করেছেন রাজ‍্য প্রশাসন। তবে তার সুযোগে মাস্ককে হাতিয়ার করেছেন বাইক আরোহীরা। বিনা হেলমেটে অবাধে বিচরণ করতে দেখা গেল বাইক আরোহীদের। এদিন এমন ছবি ধরা পড়েছে চাঁচল এলাকার সড়কপথ গুলিতে। হেলমেটটা পরতে হবে নিজের জন্য। জীবন বাঁচানোর জন্য হেলমেট পরা জরুরি বলে সরকারি নির্দেশ রয়েছে।
এবিষয়ে চাঁচলের এসডিপিও সজলকান্তি বিশ্বাস বলেন, পুলিশ সদা তৎপর। বাসিন্দাদের অভিযোগ ঠিক নয়। বিনা হেলমেটে কাউকেই ছাড়া হচ্ছে না।