সোনাপুরে পাচারের আগে লরি বোঝাই ৪২টি গোরু সহ ৩ জন গ্রেপ্তার

321

ফাঁসিদেওয়া, ১৯ সেপ্টেম্বরঃ পাচারের আগে লরি বোঝাই ৪২টি গোরু সহ ৩ জনকে ঘোষপুকুর ফাঁড়ির পুলিশ গ্রেপ্তার করল। ধৃত মহম্মদ গফ্ফর (৫০), মহম্মদ নাজিবুল (১৮) উত্তর দিনাজপুর জেলার করণদিঘির বাসিন্দা এবং ফিরোজ আলম (২৪) বিহারের বাসিন্দা বলে পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে। গোপন সূত্রে পাওয়া খবরের ভিত্তিতে শুক্রবার ঘোষপুকুর ফাঁড়ির ওসি অভিজিৎ বিশ্বাসের নেতৃত্বে গান্ধি মোড়ে পুলিশি অভিযান শুরু হয়। একটি সন্দেহভাজন বিহার নম্বরের ১৪ চাকা লরিতে তল্লাশি চালাতেই বিভিন্ন রংয়ের গোরু উদ্ধার হয়। পুলিশ গোরু বোঝাই লরি এবং চালক সহ মোট ৩ জনকে থানায় নিয়ে যায়। সেখানে জিজ্ঞাসাবাদে অভিযুক্তরা গোরু পাচারের কথা স্বীকার করে নেয়। এরপরই পুলিশ লরির চালক এবং খালাসি সহ মোট ৩ জনকে পাচারে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেপ্তার করে। অন্যদিকে, পাচারে ব্যবহৃত লরিটি পুলিশ বাজেয়াপ্ত করেছে। পাশাপাশি, উদ্ধার হওয়া গোরু খোয়ারে পাঠানো হয়েছে। পুলিশের অনুমান গোরুর আনুমানিক বাজার মূল্য কয়েক লক্ষ টাকা। গোরুগুলি বিহার থেকে সোনাপুরে পাচার উদ্দেশ্যে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল বলে পুলিশ মনে করছে। ধৃতদের শনিবার শিলিগুড়ি মহকুমা আদালতে তোলা হয়েছে। বিচারক ধৃতদের জেল হেপাজতের নির্দেশ দিয়েছেন। ডিএসপি (গ্রামীণ) অচিন্ত্য গুপ্ত জানিয়েছেন, গোরু পাচারে আর কারা জড়িত সেবিষয়ে ইতিমধ্যেই পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে।