ধর্নায় বসে শিলিগুড়িতে গ্রেপ্তার ৩ বিজেপি বিধায়ক, পরে জামিন

183

শিলিগুড়ি: শিলিগুড়িতে ধর্না থেকে গ্রেপ্তার করা হল তিন বিজেপি বিধায়ককে। রবিবার সকালে করোনা মোকাবিলায় বেহাল স্বাস্থ্য পরিকাঠামোর অভিযোগ তুলে শিলিগুড়ির হাসমিচকে ধর্নায় বসেন শিলিগুড়ির বিজেপি বিধায়ক শংকর ঘোষ, ডাবগ্রাম ফুলবাড়ি এলাকার বিজেপি বিধায়ক শিখা চট্টোপাধ্যায় ও মাটিগাড়া নকশালবাড়ির বিধায়ক আনন্দময় বর্মন। প্রায় আধ ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে তাঁরা অবস্থান বিক্ষোভ চালিয়ে যান। পুলিশ সকাল ১০টা নাগাদ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাঁদের গ্রেপ্তার করে শিলিগুড়ি থানায় নিয়ে যায়। পরে ব্যক্তিগত জামিনে মুক্তি দেওয়া হয় তাঁদের।

শঙ্কর ঘোষের দাবি, শিলিগুড়ি শহরে ও মহকুমার চিকিৎসা পরিস্থিতি দেখে তাঁরা ৩ বিধায়ক অবস্থানে বসতে বাধ্য হয়েছেন। নির্বাচিত জন প্রতিনিধিদের বাদ দিয়ে পরাজিতদের দিয়ে শহরের কাজ চালানো হচ্ছে। প্রশাসনিক সভা হচ্ছে, বেসরকারি স্বাস্থ্য পরিষেবায় লাগাম টানার কথা বলা হচ্ছে, স্বাস্থ্য পরিষেবার ঘাটতি দূর করার জন্য বড় বড় বিবৃতি দেওয়া হচ্ছে, কিন্তু বাস্তবের সঙ্গে বিবৃতির সঙ্গে কোনও মিল নেই। স্বাস্থ্য পরিষেবাকে কেন্দ্র করে অমানবিক ঘটনা পর পর ঘটেই চলেছে। শংকরের আরও অভিযোগ, করোনা নিয়ে এতদিন রাজনীতি হয়েছে এখন মানুষের প্রাণ নিয়েও রাজনীতি চলছে। এদিন থানায় নিয়ে গিয়ে বসিয়ে রাখা হয় তিন বিধায়ককে। যদিও তৃণমূল সূত্রে বলা হয়েছে, অতিমারি মোকাবিলায় রাজ্য সরকার যখন সব রকম উদ্যোগ নিচ্ছে তখন বিজেপি বিধায়করা সকলের নজরে আসার জন্য এইসব করছেন।

- Advertisement -