বধূ মৃত্যুর ঘটনায় গ্রেপ্তার স্বামী সহ ৩

189

বর্ধমান: শ্বশুর বাড়িতে গৃহবধূর আত্মঘাতী হওয়ার ঘটনায় গ্রেপ্তার হল স্বামী, শ্বশুর ও শাশুড়ি। ধৃতদের নাম হেমন্ত মণ্ডল, সুশীল মণ্ডল ও মীরা মণ্ডল। পূর্ব বর্ধমানের মেমারি থানার কেন্না গ্রামের সায়রের পাড় এলাকায় ধৃতদের বাড়ি। বৃহস্পতিবার সকালে বাড়ি থেকে পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করে।এদিনই ধৃতদের পেশ করা হয় বর্ধমান আদালতে। ভারপ্রাপ্ত সিজেএম ধৃতদের ১২ আগস্ট পর্যন্ত বিচার বিভাগীয় হেপাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

পুলিশ জানিয়েছে, কয়েক বছর আগে মেমারি থানার কৈলাশপুরের বাসিন্দা রাধেশ্যাম রায়ের মেয়ে পার্বতী মণ্ডল(২২)-র সঙ্গে প্রেমকরে বিয়ে হয় হেমন্তর। অভিযোগ বিয়ের কিছুদিন পর থেকেই স্বামী ও শ্বশুর বাড়ির লোকজন বাবার বাড়ি থেকে সোনার গয়না ও টাকা আনার জন্য চাপ দেওয়া শুরু করে বধূকে। বাবার বাড়ির লোকজন টাকা দিতে না পারায় শ্বশুর বাড়ির লোকজন বধূর উপর নির্যাতন চালানো শুরু করে। বাবার বাড়ির লোকজন পার্বতীর উপর নির্যাতন চালানো বন্ধ করার অনুরোধ করলেও অত্যাচার বন্ধ হয়নি। বুধবার বিকালে শ্বশুরবাড়িতে ঘরের বাঁশের কাঠামোয় গলায় ওড়নার ফাঁস দিয়ে ঝোলা অবস্থায় পার্বতীর মৃতদেহ উদ্ধার হয়। পুলিশ দেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তে পাঠায়। মেয়ের মৃত্যুর জন্য বাবা রাধেশ্যাম রায় বধূর স্বামী, শ্বশুর ও শাশুড়ির বিরুদ্ধে মেমারি থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। দায়ের হওয়া অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার ধারায় মামলা রুজু করে তিনজনকে গ্রেপ্তার করে।

- Advertisement -