ছুরি দিয়ে কুপিয়ে তিনজনকে খুনের অভিযোগ, চাঞ্চল্য খড়িবাড়িতে

314

খড়িবাড়ি: খড়িবাড়িতে শ্যালিকা, শ্বশুর ও প্রতিবেশী যুবককে খুনের অভিযোগ উঠল এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা নাগাদ ঘটনাটি ঘটেছে খড়িবাড়ি থানার শচীন্দ্রচন্দ্র চা বাগানের দীপা লাইন এলাকায়। মৃতদের নাম মাহারু ওরাওঁ (৬৭), পেনো ওরাওঁ (২৭) ও আলবার্ট মিনজ। ঘটনাকে কেন্দ্র করে সোমবার সন্ধ্যায় খড়িবাড়িতে চাঞ্চল্য ছড়ায়। পুলিশ তদন্ত করছে। প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে, পারিবারিক বিবাদের জেরেই এই খুন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, পেনো ওরাওঁ শচীন্দ্রচন্দ্র চা বাগানের স্থায়ী শ্রমিক। সোমবার সন্ধ্যায় কাজ থেকে বাড়ি ফেরেন তিনি। অভিযোগ, পেনো বাড়ি ফিরতেই হঠাৎই বোন জামাই মারিয়ানুস ওরাওঁ তাঁকে ছুরি দিয়ে কোপাতে থাকে। মেয়েকে বাঁচাতে বৃদ্ধ বাবা মাহারু ওরাওঁ ছুটে এলে মারিয়ানুস তাঁকে আক্রমণ করে, ছুরি দিয়ে কোপায়। চিৎকার শুনে তাঁদের বাঁচাতে ছুটে আসেন প্রতিবেশী যুবক আলবার্ট মিনজ। তাঁকেও ছুরি দিয়ে কোপায় অভিযুক্ত। এরপর এলাকার অন্য বাসিন্দারা ঘটনাস্থলে এলে পালিয়ে যায় মারিয়ানুস। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন খড়িবাড়ি বাগানের ম্যানেজার ভিপি সিং। তিনি খড়িবাড়ি থানায় খবর দেন। গুরুতর জখম তিনজনকে খড়িবাড়ি গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসক পেনো এবং মাহারুকে মৃত ঘোষণা করেন। অ্যালবার্টকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে রেফার করা হয়। গভীর রাতে মৃত্যু হয় আলবার্টের।

- Advertisement -

ডেপুটি পুলিশ সুপার (গ্রামীণ) অচিন্ত্য গুপ্ত জানান, তিনজন খুন হয়েছেন। ঘটনার পরপরই অভিযুক্ত পালিয়ে গিয়েছিল। তল্লাশি চালিয়ে রাত ১০টা নাগাদ অভিযুক্ত মারিয়ানুস ওরাওঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, দেহ ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। ধৃতকে মঙ্গলবার শিলিগুড়ি মহকুমা আদালতে তোলা হয়।