বেহাল নিকাশি, জল নামেনি এখনও

মুরতুজ আলম, সামসী : পুজোর সময় বৃষ্টি হয়েছিল। কিন্তু সেই বৃষ্টির জল এখনও জমে রয়েছে সামসীর মহেশপুর পশ্চিমপাড়ায়। নিকাশি ব্যবস্থার নামগন্ধ না থাকাতেই এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর। জল থইথই মহেশপুরে নরকয়ন্ত্রণা ভোগ করছে ৩০০ পরিবার। পরিস্থিতি নিয়ে গ্রামবাসীদের মধ্যে ক্ষোভ বাড়ছে। গ্রামবাসীরা নিকাশি নালা তৈরির দাবি জানিয়েছেন। মহেশপুর পশ্চিমপাড়ার বাসিন্দা সাবির আলি জানান, প্রতি বছর  বর্ষাকালে জলমগ্ন হয়ে থাকে আমাদের গোটা পাড়া। কিন্তু এবার বৃষ্টি থেমে গেলেও জলবন্দি দশা কাটেনি। স্থানীয় বাসিন্দা মহম্মদ জামালুদ্দিনের গলাতেও একই সুর শোনা গেল। মহেশপুরের বাসিন্দা রেজাউল করিম জানান, আমাদের পাড়ার প্রায় ৩০০ পরিবার জলে অবরুদ্ধ হয়ে রয়েছে। জল নিকাশির কোনো ব্যবস্থা নেই। নিকাশির ব্যবস্থা থাকলে, এমন দুর্ভোগ পোহাতে হত না। গ্রামবাসীদের বক্তব্য, অনেকের বাড়িতেও জল জমে রয়েছে। অনেকের বাড়িতে শৌচালয় এমনকি নলকূপ এখনও জলের তলায়। বৃষ্টির জমা জল পেরিয়ে হাঁটাচলা করাই দায়। গ্রামের পঞ্চায়ে সদস্য সঞ্জয় দাস বলেন, ভালো নিকাশি ব্যবস্থা তৈরির দাবি তুলেছেন মহেশপুর পশ্চিমপাড়ার বাসিন্দারা। ওই পাড়ায় জল নিষ্কাশনের জন্য নিকাশি নালা তৈরি করা জরুরি। বিষয়টি প্রধানকে বলেছি। পঞ্চায়েত প্রধান শ্রবণকুমার দাস জানান, মহেশপুর পশ্চিমপাড়ায় নিকাশি নালা তৈরির জন্য শীঘ্রই বিডিওর কাছে প্রস্তাব পাঠানো হবে। এলাকার জেলাপরিষদ সদস্য হুমায়ুন কবির বাজনাও মহেশপুর পশ্চিমপাড়ায় নিকাশি নালা তৈরির আশ্বাস দিয়েছেন।