কালচিনি ব্লকে নতুন করে করোনা আক্রান্ত ৩২

329

কালচিনি: করোনা সংক্রমণ কার্যত গোষ্ঠী সংক্রমণে পরিণত হয়েছে কালচিনি ব্লকে। গত তিনদিন আগে ব্লকে একদিনে ১৫ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে। বুধবার ফের এই ব্লকে নতুন করে ৩২ জন আক্রান্তের হদিস মিলল।

ব্লক সদর কালচিনিতেই ১৯ জন আক্রান্ত হয়েছেন বলে ব্লক প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে। এছাড়াও পুরানো হাসিমারায় নতুন করে সাতজন আক্রান্ত হয়েছেন। জয়গাঁয় এদিন পাঁচজন করোনা আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে। মধু বাগান চৌপথি এলাকার একজন সংক্রামিত হয়েছেন। সব মিলিয়ে কালচিনি ব্লকের করোনা পরিস্থিতি উদ্বেগজনক।

- Advertisement -

ব্লকে আক্রান্তদের মধ্যে ১১ জন মহিলা রয়েছেন। পুরানো হাসিমারায় আক্রান্তদের মধ্যে একজন প্রসূতি মহিলা ও কালচিনির একজন সংবাদকর্মীও রয়েছেন। কালচিনির মোদি লাইনের বাসিন্দা চারজন, কালচিনি চৌপথি এলাকার বাসিন্দা নয়জন, স্টেশন রোডের চারজন, লতাবাড়ি হসপিটাল রোডের একজন, থানা লাইনের একজন আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। জয়গাঁর আক্রান্তদের মধ্যে একজন ত্রিবেণী টোল ও একজন ঝর্ণা বস্তির বাসিন্দা।

কালচিনির বিডিও ভূষণ শেরপা জানিয়েছেন, আক্রান্তদের তপসিখাতা কোভিড হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এছাড়াও আক্রান্তদের এলাকা কনটেনমেন্ট জোন ঘোষণা করে বাঁশের ব্যারিকেড দেওয়া হয়েছে।

অন্যদিকে, করোনা সংক্রমণ বাড়তে থাকলেও কিছু মানুষ লকডাউন ও স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না‌। তাঁদের বিরুদ্ধে পুলিশ আইনানুগ ব্যবস্থা নিচ্ছে। জয়গাঁ থানার পুলিশ পাঁচজনকে, হাসিমারা ফাঁড়ির পুলিশ ১০ জন ও কালচিনি থানার পুলিশ ১১ জনকে লকডাউন ভাঙার ও স্বাস্থ্যবিধি না মানার অভিযোগে গ্ৰেপ্তার করেছে। পরে অবশ্য তাঁদের বিরুদ্ধে বিপর্যয় আইন মোতাবেক মামলা দায়ের করে বেল বন্ডে ছেড়ে দেয় পুলিশ।

কালচিনিতে করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা লাফিয়ে বাড়তে থাকায় ব্লক প্রশাসনের নির্দেশে বুধবার হাসিমারা দমকল কেন্দ্রর তরফে বিডিও অফিস, কালচিনি থানা, কালচিনি বাজার সহ বিভিন্ন এলাকায় জীবাণুনাশক স্প্রে করেনদমকল কর্মীরা। হাসিমারা দমকল কেন্দ্রের অফিসার গৌতম সাহা জানান, ব্লকের বিভিন্ন এলাকায় তাঁদের কর্মসূচি জারি থাকবে।