করোনা যুদ্ধ জয় করে ঘরে ফিরলেন চার স্বাস্থ্যকর্মী

220

রায়গঞ্জ: করোনা যুদ্ধ জয় করে ঘরে ফিরলেন চার স্বাস্থ্যকর্মী। করোনাকে হারিয়ে সুস্থ হয়ে মানুষের মনোবল অনেকটাই বাড়িয়ে দিলেন উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জ ব্লকের এই চার স্বাস্থ্যকর্মী।

মঙ্গলবার বিকেল পাঁচটা নাগাদ ওই চারজন স্বাস্থ্যকর্মীকে বাড়ি ফিরিয়ে দিতে পেরে রীতিমতো খুশি কোভিড হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ফুলের তোড়া ও মিষ্টির প্যাকেট দিয়ে ওই চারজন স্বাস্থ্যকর্মীকে রীতিমত সাড়ম্বরে বিদায় জানান চিকিৎসক-নার্স, স্বাস্থ্যকর্মী, ফার্মাসিস্ট ও স্বাস্থ্য দপ্তরের আধিকারিকরা।

- Advertisement -

চলতি মাসের ২৩ তারিখে করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে ওই চার স্বাস্থ্যকর্মীর। তড়িঘড়ি তাঁদের উদ্ধার করে রায়গঞ্জের কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা শুরু হয়। এদিন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন স্বাস্থ্যকর্মীরা। তাঁদের দাবি, ফিল্ডে কাজ করতে গিয়েই করোনা সংক্রমণ হয়েছে।

জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক রবীন্দ্রনাথ প্রধান বলেন, আমাদের ঘরের মেয়ে সুস্থ হয়ে ঘরে ফেরায় আমরা খুশি। কোভিড হাসপাতালের সুপারিনটেনডেন্ট দিলীপকুমার গুপ্তা বলেন, এর আগে বৃদ্ধ-বৃদ্ধাদের সুস্থ করে বাড়ি ফেরানো হয়েছে। এদিন চারজন স্বাস্থ্যকর্মী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন।

কোভিড হাসপাতালে নার্সিং সুপারিনটেনডেন্ট বাপি বিশ্বাস বলেন, স্বাস্থ্যকর্মীরা সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে যাওয়ায় আমরা খুশি। এদিন স্বাস্থ্যকর্মীদের পরিবারের লোকেরা জানান, কোভিড ওয়ার্ডে রোগীর পরিবারের আত্মীয়দের প্রবেশ নিষেধ ছিল। শুধু ফোনেই কথা হত। চিকিৎসক, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মীদের শুশ্রূষায় তাঁরা সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

স্বাস্থ্যকর্মীদের বক্তব্য, করোনা মুক্ত হয়ে বাড়ি ফিরতে ভালই লাগছে। সাত দিন পর ফের ফিল্ডে কাজ করা শুরু করবেন। তাঁরা জানান, করোনাকে ভয় করলে চলবে না। আর পাঁচটা রোগের মতই করোনা একটি রোগ। নিয়মিত স্যানিটাইজার, মাস্ক ও সামাজিক দূরত্ব মানার পাশাপাশি ঠিকঠাক ওষুধ, অনাক্রম্যতা বাড়ানোর জন্য প্রোটিন জাতীয় খাবার খেলেই করোনা মোকাবিলা করা যায়।

এদিন কোভিড হাসপাতাল থেকে বেরোনোর সময় স্বাস্থ্য দপ্তরের আধিকারিকরা তাঁদের পুষ্প বৃষ্টির মাধ্যমে অভিনন্দন জানান।