জলপাইগুড়ি, ৭ মেঃ ছিনতাইয়ের ঘটনার ২৪ ঘন্টার মধ্যে চার দুষ্কৃতি সহ খোয়া যাওয়া ৪ লক্ষ ৪৫ হাজার টাকা উদ্ধার করল জলপাইগুড়ি কোতয়ালি থানার পুলিশ। সোমবার সন্ধ্যায় ভক্তিনগর থানার বিভিন্ন এলাকা থেকে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, রবিবার শিলিগুড়ির প্রধান নগর এলাকার এক ফল ব্যবসায়ীর ম্যানেজার সনৎ ঘোষ শিলিগুড়ি এলাকা থেকে একটি গাড়ি ভাড়া নিয়ে কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার সহ ডুয়ার্সের বিভিন্ন এলাকার খুচরো ব্যবসায়ীদের থেকে ব্যবসার বকেয়া টাকা তুলে শিলিগুড়ি ফিরছিলেন। রাত ৯টা নাগাদ পাতকাটা গ্রাম পঞ্চায়েতের রায়পুর চা বাগান এলাকায় সনৎবাবুর গাড়ি পৌঁছাতেই অপর একটি গাড়ি তাঁর পথ আটকায়। সেই গাড়ি থেকে তিন যুবক নেমে এসে সনৎবাবুর কাছে থাকা টাকার ব্যাগ ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। বাধা দেওয়ার চেষ্টা করলে ওই দুষ্কৃতিরা সনৎবাবুর মাথায় আঘাত করে ব্যাগ নিয়ে পালিয়ে যায়। রবিবার রাতেই জলপাইগুড়ি কোতয়ালি থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন সনৎবাবু।

পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনার সময় সনৎবাবুর ব্যাগে ৪ লক্ষ ৪৫ হাজার টাকা ছিল। ছিনতাইয়ের অভিযোগ পাওয়া মাত্রই রাতেই অভিযুক্তদের ধরতে তদন্ত শুরু করে পুলিশ। তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে সনৎবাবু শিলিগুড়ি থেকে যে গাড়িটি ভাড়া করেছিলেন তাঁর চালক এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত রয়েছে। সে এই ঘটনার মাস্টার মাইন্ড। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেই বাকি অভিযুক্তদের বিষয়ে জানতে পারে পুলিশ। এরপর গতকাল দিনভর শিলিগুড়ির বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে বাকি তিন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তাদের কাছ থেকে সনৎবাবুর খোয়া যাওয়া টাকাও উদ্ধার হয়।

কোতয়ালি থানার আইসি বিশ্বাশ্রয় সরকার বলেন, ‘এটা পুলিশের একটা বড় সাফল্য। এই ঘটনায় আরও কেউ যুক্ত রয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। মঙ্গলবার অভিযুক্তদের জলপাইগুড়ি আদালতে পেশ করা হবে।’