ইন্দোর, ২১ এপ্রিলঃ পাশবিক যৌন লালসার হাত থেকে রক্ষা পেল না চার মাসের শিশুও। বৃহস্পতিবার ভোর রাতে ধর্ষণের পর খুন করা হল এক শিশুকে। ঘটনাটি মধ্যপ্রদেশের ইন্দোরের অভিজাত এবং ঐতিহাসিক অঞ্চল রাজওয়াডা-য়।

সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গিয়েছে অভিযুক্ত সুনীল ভিল(২১) ভোর ৪.৪৫ মিনিট নাগাদ শিশুটিকে কাঁধে করে নিয়ে যাচ্ছিল। জানা গিয়েছে সে ওই পরিবারের পরিচিত।

শুক্রবার বেলা সাড়ে এগারোটা নাগাদ মৃত শিশুর ক্ষতবিক্ষত দেহ উদ্ধার হয়েছে হেরিটেজ শিব বিলাস প্যালেসের বেসমেন্ট থেকে।

ইনদোরের এমওয়াই হাসপাতালে শিশুটির দেহের ময়নাতদন্তে ধর্ষণের প্রমাণ মেলে। শিশুর গোপনাঙ্গে ক্ষত ছিল এবং রক্ত লেগেছিল। মাথাতেও চোটের প্রমাণ মিলেছে। পুলিশের ধারণা, শিশুটিকে মাটিতে আছড়ে ফেলেছে অভিযুক্ত।

পুলিশ জানিয়েছে, শিশুর মায়ের সঙ্গে বচসা হয় অভিযুক্তের। তারপরই এমন ঘটনা ঘটিয়েছে সে। ঘটনার জেরে সাসপেন্ড করা হয়েছে সারাফা পুলিশ স্টেশনের এসআই ত্রোলিক সিং ভারকাডে-কে। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ নিজের কর্তব্য পালন করেননি তিনি। ডিআইজি হরিনারায়ণচারি মিশ্র জানিয়েছেন, এই নৃশংস ও ঘৃণ্য ঘটনার কথা কর্তব্যরত ত্রোলিক সিং তাঁর ঊর্ধ্বতন আধিকারিকদের জানাননি। মৃত শিশুর বাবা পেশায় বেলুন বিক্রেতা। রাতে দালানে পরিবারের সঙ্গে শুয়ে ছিল শিশুটি। সেই সময়ে সেখানে পুলিশি টহল থাকার পরেও কীভাবে এমন একটি ঘটনা ঘটল উঠছে তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন।