মালদায় করোনা সংক্রামিত আরও ৪২, বাড়ছে গোষ্ঠী সংক্রমণ

358

পুরাতন মালদা: ক্রমেই সংকট বাড়ছে মালদায়। গোষ্ঠী সংক্রমণ বাড়তে থাকায় উদ্বেগ বাড়ছে জেলাজুড়ে। শনিবার সূত্রের খবর, গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে আরও ৪২ জনের করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ল জেলায়। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ১৫ জনের সংক্রমণ ধরা পড়েছে ইংরেজবাজার পুরসভা এলাকায়। জেলায় সংক্রামিতদের মধ্যে যেমন রয়েছেন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের স্বাস্থ্যকর্মী, তেমনি আছেন হোমগার্ড কর্মী, সাধারণ ব্যবসায়ীর মতো সাধারণ মানুষও।

ইংরেজবাজার পুরসভার নয় নম্বর ওয়ার্ডের বালুচর এলাকায় আরও পাঁচজন সংক্রামিত হয়েছেন। ২২ ও ২৩ নম্বর ওয়ার্ডে দু’জন করে সংক্রামিত হয়েছেন। এছাড়াও, একজন করে সংক্রামিত হয়েছেন ১৭, ১৮,২৫,২৬ ও ২৮ নম্বর ওয়ার্ডে। অন্যদিকে, শহরের ঝলঝলিয়া এলাকায় একজনের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। ইংরেজবাজার ব্লকের পাঁচটি গ্রাম পঞ্চায়েতে সংক্রামিত হয়েছেন ৮ জন। এর মধ্যে যদুপুর ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের ৩ জন, মিল্কি’র দু’জন, কাজিগ্রাম, কোতোয়ালি ও অমৃতি গ্রাম পঞ্চায়েতের একজন করে সংক্রামিত হয়েছেন । হরিশ্চন্দ্রপুর ২ নম্বর ব্লকের ছয়জন সংক্রামিতের মধ্যে ইসলামপুরের ৩ জন, দৌলতনগরের দু’জন ও ভালুকার একজন রয়েছেন। কালিয়াচক ২ নম্বর ব্লকের গোলাপগঞ্জ ও সতেরো মাইলের দু’জন সংক্রামিত হয়েছেন। চাঁচোল ১ নম্বর ব্লকের খরবা ও গৌরহন্ড এলাকার দুই জনের করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে।

- Advertisement -

এছাড়াও, পুরাতন মালদায় নতুন করে করোনায় সংক্রামিত হয়েছেন চারজন। এর মধ্যে পুরসভা এলাকার ১৮ নম্বর ওয়ার্ডের মহানন্দাপল্লীর এক ওষুধ ব্যবসায়ী সংক্রামিত হয়েছেন। তিনি জ্বর, শ্বাসকষ্টের মতো উপসর্গ নিয়ে মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সারি ওয়ার্ডে ভর্তি ছিলেন। পুরাতন মালদার মুচিয়ার মনোহরপুরের এক স্বাস্থ্যকর্মীরও করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। তিনি মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নার্সিং স্টাফ বলে জানা গেছে। এছাড়াও, পুরাতন মালদার মহিষবাথানি গ্রাম পঞ্চায়েতের সিঙ্গাপাড়ার এক হোমগার্ড কর্মী করোনা সংক্রামিত হয়েছেন। তিনি মালদা জেলা আদালতে কর্তব্যরত ছিলেন। ব্লকের অপর এক সংক্রামিতও মহিষবাথানির বলরামপুরের এক ষোলো বছরের নাবালিকা বলে খবর।

এদিকে পুরাতন মালদার কোভিড হাসপাতালে ভর্তি জেলার ডেপুটি সিএমওএইচ ১-র দ্বিতীয় রিপিট টেস্টের রিপোর্ট ফের পজিটিভ এসেছে বলে স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গেছে। এমনকি কলকাতায় চিকিৎসাধীন জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকের রিপিট টেস্টের রিপোর্টও পজিটিভ এসেছে বলে জানা গেছে। যদিও তাঁদের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল।