মালদায় করোনা সংক্রামিত আরও ৪৪

787

পুরাতন মালদা: করোনা সংক্রমণের নিরিখে উত্তরবঙ্গে সবচেয়ে সংকটজনক অবস্থা মালদার। জেলায় নতুন করে আরও ৪৪ জনের করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ায় উদ্বেগ বাড়ছে জেলাজুড়ে।

নতুন করে সংক্রামিতদের মধ্যে পুলিশকর্মী ও স্বাস্থ্যকর্মীরাও রয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় মালদা জেলায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ঘটেছে কালিয়াচক ১ নম্বর ব্লকের আলিপুর ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতে। এখানে মোট ১৭ জন সংক্রামিত হয়েছেন। যার মধ্যে শেরশাহি এলাকায় সংক্রমণ সবচেয়ে বেশি।

- Advertisement -

এছাড়াও কালিয়াচক ২ নম্বর ব্লকে পাঁচজন, কালিয়াচক ৩ নম্বর ব্লকে একজন, বামনগোলা ব্লকে একজন, ইংরেজবাজার ব্লকে নয়জন, ইংরেজবাজার পুর এলাকায় ছয়জন, পুরাতন মালদা ব্লকে একজন ও পুরসভায় একজন সংক্রামিতের হদিশ মিলেছে। দু’জনের ঠিকানা এখনও স্পষ্ট নয়। ইংরেজবাজার ব্লকের সংক্রামিতদের মধ্যে বিনোদপুর গ্রাম পঞ্চায়েত চারজন, যদুপুর-২ গ্রাম পঞ্চায়েতে তিনজন ও কাজিগ্রাম গ্রাম পঞ্চায়েতের দুজন রয়েছেন। ইংরেজবাজার পুরসভার ছয়জন সংক্রামিতের মধ্যে ৯ নম্বর ওয়ার্ডের বালুচর এলাকার ন’মাসের এক শিশুকন্যা রয়েছে বলে জানা গিয়েছে। ২ নম্বর ওয়ার্ডের পুলিশ লাইনের এক কর্মীও সংক্রমণের শিকার হয়েছেন। এছাড়াও ২০ নম্বর ওয়ার্ডের গয়েশপুরের এক মহিলা স্বাস্থ্য কর্মীরও সংক্রমণ ধরা পড়েছে। ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের সারদাপল্লীর একজন সংক্রামিত হয়েছেন। এছাড়াও মালদা ট্রাফিক পুলিশের আরও দুজন রয়েছেন।

অন্যদিকে, পুরাতন মালদা পুরসভার ১৯ নম্বর ওয়ার্ডের একজনের শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। পুরাতন মালদারই মহিষবাথানি গ্রাম পঞ্চায়েতের বলরামপুরের বছর ৪-এর এক শিশুও করোনা সংক্রামিত হয়েছেন। বামনগোলা ব্লকের মদনাবতীর আক্রান্ত ব্যক্তি স্বাস্থ্যকর্মী বলে জানা গিয়েছে। সব মিলিয়ে মালদা জেলায় মোট করোনা সংক্রামিতের সংখ্যা দাঁড়াল ৪২২। এর মধ্যে ২৫০-এর বেশি সংক্রামিত ব্যক্তি ইতিমধ্যেই সুস্থ হয়েছেন বলে খবর।