ওভারলোডিংয়ের অভিযোগে আটক ৫টি ট্রাক

409

চ্যাংরাবান্ধা: ধূপগুড়ির পথ দুর্ঘটনার পর কোচবিহার জেলার চ্যাংরাবান্ধা সীমান্তে ওভারলোডেড গাড়ি নিয়ে নড়েচড়ে বসল পরিবহণ দপ্তর। অতিরিক্ত পণ্য পরিবহনের অভিযোগে বুধবার চ্যাংরাবান্ধা সীমান্ত থেকে এমভিআই ও এআরটিও মাথাভাঙ্গা দপ্তরের অধিকারিকরা পাঁচটি ট্রাক আটক করলেন।

চ্যাংরাবান্ধা বৈদেশিক বাণিজ্য কেন্দ্র এলাকায় ওভারলোডের রমরমা কারবার চলছে বলেই অভিযোগ পৌঁছায় প্রশাসনের বিভিন্ন মহলে। প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, ওই সীমান্ত এলাকা দিয়ে যে সমস্ত ট্রাক পণ্য নিয়ে বাংলাদেশে যাচ্ছে প্রতিটি ট্রাকেই ওভারলোড বহন করা হচ্ছে। প্রতিটি ট্রাকের বহন ক্ষমতার থেকে অতিরিক্ত পণ্য বহন করা হচ্ছে। বিশেষ করে ট্রাকগুলিতে ব্যাপকমাত্রায় অতিরিক্ত বোল্ডার বহন করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। কেউ কেউ আড়াল করার উদ্দেশে বোল্ডারের ট্রাকে ত্রিপল বেঁধে নিয়ে যাচ্ছে। সীমান্তের ওই এলাকায় অতিরিক্ত বোল্ডার পরিবহন করে নিয়ে যাওয়ার ফলে মারাত্মক দুর্ঘটনা ঘটনার আশঙ্কা রয়েছে। প্রশাসনের একাংশের মদতেই বেআইনিভাবে ওভারলোড চলছে বলেও অভিযোগ পৌঁছেছে প্রশাসনের উচ্চকর্তাদের কাছে। তবে, সম্প্রতি ধূপগুড়ির ঘটনার পর চ্যাংরাবান্ধা সীমান্তের ওভারলোডের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে।

- Advertisement -

কোচবিহার জেলা আঞ্চলিক পরিবহন দপ্তরের আধিকারিক আশুতোষ রায় জানিয়েছেন, ওভারলোডিং সহ এই ধরণের বেআইনি কার্যকলাপের বিরুদ্ধে মাঝেমধ্যেই অভিযান চালানো হয়। এতে সাফল্যও মিলেছে। বুধবারও অভিযান চালানো হয়েছে। কয়েকটি ট্রাকও আটক করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।