নাবালিকার শ্লীলতাহানি, অভিযুক্তের কারাদন্ড

685

মাথাভাঙ্গা: নাবালিকার শ্লীলতাহানির ঘটনায় অভিযুক্ত এক পঞ্চাশোর্ধ্ব ব্যক্তির সাজা ঘোষণা করল মাথাভাঙ্গা অতিরিক্ত জেলা দায়রা বিচারকের স্পেশাল পকসো কোর্ট। বুধবার সাজা ঘোষণা হয়েছে। সরকারি কৌঁসুলি আবু ফাত্তাহ হক জানান, সোমবারই অভিযুক্তকে দোষী সাব্যস্ত করেন মাথাভাঙ্গা অতিরিক্ত জেলা দায়রা জজ নির্বান খেশং। আর এদিন দোষীকে ৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড এবং ১০ হাজার টাকা জরিমানার নির্দেশ দেন বিচারক। অনাদায়ে ৬ মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ডের নির্দেশ দেওয়া হয়। সরকারি কৌঁসুলি জানান, মাথাভাঙ্গায় স্পেশাল পকসো কোর্ট চালু হওয়ার পর এই প্রথম কোনো সাজা ঘোষণা হল।

মাথাভাঙ্গা ১ ব্লকের বিজিকুটা গ্রামের বাসিন্দা ওই ব্যক্তির বিরুদ্ধে ২০১৮ সালের ২৬ অগাস্ট মাথাভাঙ্গা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন নির্যাতিতার মা। অভিযোগ, সেদিন নাবালিকা বাড়িতে একা ছিল। সেই সুযোগে অভিযুক্ত ব্যক্তি ওই নাবালিকার বাড়িতে গিয়ে তার কাছে সুপারি খেতে চান। নাবালিকা সুপারি আনতে ঘরে ঢুকলে সুযোগ বুঝে ওই ব্যক্তিও ঘরে ঢুকে দরজা বন্ধ করে নাবালিকার শ্লীলতাহানি করেন বলে অভিযোগ। নাবালিকার বাবা-মা বাড়ি ফিরে মেয়ের মুখে ঘটনার কথা শুনে মাথাভাঙ্গা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। সরকারি কৌঁসুলি জানান, মামলা চলাকালীন মোট ১৪ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ করে আদালত। সাজাপ্রাপ্ত ব্যক্তিকে এদিন মাথাভাঙ্গা সংশোধনাগারে পাঠানো হয়েছে।

- Advertisement -