মহারাষ্ট্র: রাজ্যের ৫৩১ পুলিশকর্মী মারণ করোনায় আক্রান্ত, মৃত ৫

564

মুম্বই: রাজ্য পুলিশের ৫১ জন অফিসার সহ মোট ৫৩১ জন পুলিশ কর্মীর শরীরে করোনা পজিটিভ ধরা পড়েছে৷ এদের মধ্যে ৪৮০ জন কনস্টেবেল মহারাষ্ট্রের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বলে সুত্রের খবর। যদিও ৫৩১ জনের মধ্যে ৮ অফিসার সহ মোট ৩৯ জন ইতিমধ্যে সুস্থ হয়ে উঠৈছেন এবং ৫ জন পুলিশ কর্মীর ইতিমধ্যে মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালেই মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনীল দেশমুখ বলেন, লকডাউনের মধ্যে এখনও পর্যন্ত ৪৮৭ জন পুলিশের শরীরে কোভিড-১৯ ভাইরাস পজিটিভ মিলেছে। এদিকে লকডাউনের মাঝে নিয়ম ভাঙার জন্য মহারাষ্ট্র পুলিশ আইপিসির ১৮৮ ধারা অনুযায়ী ৯৬,২৩১টি মামলা দায়ের করেছে এবং ১৮ হাজার ৮৫৮ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।

- Advertisement -

অন্যদিকে, লকডাউনের মাঝে পুলিশকর্মীদের উপর হামলার ঘটনায় এখনও পর্যন্ত ১৮৯ টি ঘটনায় ৭৩৯ জন পুলিশ কর্মী আহত হয়েছে। এরফলে ৭৩ জন পুলিশকর্মী সহ এক হোমগার্ড ও আহত হয়েছেন বলে মহারাষ্ট্র পুলিশ সুত্রে খবর। এক পুলিশ আধিকারিক সংবাদ সংস্থাকে জানিয়েছেন, পুলিশের উপর হামলার ঘটনায় কমপক্ষে ৬৮৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

লকডাউনের আবহে পুলিশের উপর হামলা ছাড়াও স্বাস্থ্যকর্মীরাও হেনস্তার শিকার হয়েছেন। প্রায় ৩০ জন স্বাস্থ্যকর্মী আক্রান্ত হয়েছেন। অন্যদিকে ৬৪৯ জন কোয়ারান্টিন থেকে স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘন করেছেন। এছাড়াও, করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় রাজ্যেজুড়ে বিভিন্ন কন্ট্রোল রুম থেকে ৮৬,৩০৯ ফোন কল গ্রহণ করা হয়েছে।

রাজ্য পুলিশ সূত্রে খবর, লকডাউন ভেঙে রাস্তায় বের হওয়ার জন্য অবৈধ যানের বিরুদ্ধে ১,২৮১টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। একই সঙ্গে ৫৩, ৩৩০ টি গাড়ি আটক করা হয়েছে৷ তাছাড়া, লকডাউনের মাঝেই বিভিন্ন ক্ষেত্রে জরিমানা বাবদ প্রায় ৩.৫৬ কোটি টাকা সংগ্রহ করা হয়েছে।

এরআগে স্বারাষ্ট্রমন্ত্রী অনীল দেশমুখ আরও একটি ট্যুইট করে জানান, জরুরি পরিষেবার জন্য এখনও পর্যন্ত ৩ লক্ষ ১০ হাজার ৬৯৪ টি পাশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও, প্রায় ২ লক্ষ ২৪ হাজার ২১৯ জনকে রাজ্যের বিভিন্ন স্থানে স্থানান্তরিত করা হয়েছে এবং ৬৪৯ জন কোয়ারান্টিন বিধি লঙ্ঘন করেছে বলে চিহ্নিত করা হয়েছে।

রাজ্য সরকারের তরফে ৪ হাজার ৭৩৮ ত্রাণ কেন্দ্রে থেকে ৪ লক্ষ ৩৫ হাজার ৩০ জন পরিযায়ী শ্রমিক খাদ্য সামগ্রী দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে অবৈধ পণ্য পরিবহনের জন্য ১ হাজার ২৮১ মামলা দায়ের হয়েছে।