৬-৭ জন বিজেপি সাংসদ তৃণমূলে যোগ দেবেন, দাবি জ্যোতিপ্রিয়র

125

উত্তরবঙ্গ সংবাদ ডিজিটাল ডেস্ক: বিজেপিতে গিয়ে অনেকেই তৃণমূলে ফিরতে চাইছেন। ভোটের আগে ৬-৭ জন বিজেপি সাংসদ তৃণমূলে যোগ দেবেন-মঙ্গলবার এমনই দাবি করলেন রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। তাঁর এমন মন্তব্যে স্বাভাবিকভাবেই তোলপাড় রাজ্য রাজনীতি। যদিও মন্ত্রীর কথায় গুরুত্ব দিতে নারাজ বিজেপি নেতারা।

২০২১-এ বাংলায় বিধানসভা নির্বাচন। ভোটকে পাখির চোখ করে এগোচ্ছে তৃণমূল, বিজেপি, বাম-কংগ্রেস সহ সমস্ত রাজনৈতিক দল। ভোট যত এগিয়ে আসছে রাজ্যে তৃণমূল-বিজেপি তরজা ততই বাড়ছে। ঘাসফুল ও গেরুয়া শিবিরের তরফে প্রায়ই রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে মিটিং, মিছিল, রোড শো আয়োজিত হচ্ছে। একে অপরকে তোপ দাগছেন তৃণমূল-বিজেপি নেতারা। যার ফলে ক্রমশ উত্তপ্ত হয়ে উঠছে এরাজ্যের রাজনৈতিক পরিস্থিতি।

- Advertisement -

ইতিমধ্যেই রাজ্যে দলবদলের খেলা জমে উঠেছে। বিজেপি থেকে তৃণমূল, তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগ চলছে। মেদিনীপুরে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শা’র জনসভায় বিজেপিতে যোগ দেন রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। তাঁর সঙ্গে তৃণমূলের আরও কয়েকজন বিধায়ক ও সাংসদও বিজেপি যোগ দেন। শুভেন্দুর আগে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন কোচবিহার দক্ষিণের প্রাক্তন তৃণমূল বিধায়ক মিহির গোস্বামী। অন্যদিকে, সম্প্রতি বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ’র স্ত্রী সুজাতা খাঁ তৃণমূলে যোগ দেন। এরই মধ্যে এবার চাঞ্চল্যকর দাবি করলেন রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। তিনি এদিন বলেন, ‘বিজেপিতে  গিয়ে অনেকেই তৃণমূলেই ফিরতে চাইছেন। ভোটের আগে ৬-৭ জন বিজেপি সাংসদ তৃণমূলে যোগ দেবেন।’

স্বাভাবিকভাবেই জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের দাবি ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে রাজ্য রাজনীতিতে। যদিও তাঁর দাবিকে গুরুত্ব দিতে চাইছে না গেরুয়া শিবির। বিজেপি নেতা শমীক ভট্টাচার্য বলেন, ‘জ্যোতিপ্রিয়বাবু জানেন, তৃণমূলে ধস নেমেছে। সেটাকে আটকাতে তিনি এসব বলছেন।’ ব্যারাকপুরের সাংসদ অর্জুন সিং বলেন, ‘জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক ভুল বলছেন।’