রায়গঞ্জ, ৪ সেপ্টেম্বরঃ ৩৪ শতক জমি দখল ঘিরে দুই ভাইয়ের সংঘর্ষে গুরুতর জখম হলেন ছয় জন। বুধবার ঘটনাটি ঘটে রায়গঞ্জ থানার বড়ুয়া গ্রামে। দু-পক্ষের মোট ছয় জনকে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভরতি করা হয়। তাঁদের মধ্যে দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাঁদের উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজে ও হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, জখমদের নাম শহিদুল রহমান (৪৫), মুখলেসুর রহমান (৪৮), আতাবুল হক (৩৫), নাজিমুদ্দিন সরকার (৭০), রাহুল শেখ (২৬) এবং রুস্তম আলি (২২)। পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, পাঁচ বছর আগে ৩৪ শতক জমি মা সাবিনা বেওয়াকে দিয়ে নিজের নামে লিখিয়ে নেন বড়ো ছেলে নাজিমুদ্দিন সরকার। সেই জমি দখল করতে যান ভাই শহিদুল রহমান। জমিতে গিয়ে বাঁশের খুঁটি পোতার চেষ্টা করেন শহিদুল ও তাঁর পরিবারের লোকেরা। তাতে বাধা দেন জমির বর্তমান দখলদার নাজিমুদ্দিন সরকার ও তাঁর ছেলেরা। এর জেরে শুরু হয় বিবাদ। তা গড়ায় হাতাহাতিতে। এর মাঝেই শহিদুল রহমানকে লক্ষ্য করে একের পর এক গুলি ছোড়ে অন্য পক্ষের লোকজন। গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হলেও তির গিয়ে সরাসরি কপালে ঢুকে যায় শহিদুল রহমানের। সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে লুটিয়ে পড়েন তিনি। এরপর শুরু হয় দু-পক্ষের লড়াই। স্থানীয় বাসিন্দারা দু-পক্ষের ছয় জনকে উদ্ধার করে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। এই ঘটনায় দু-পক্ষই একে অপরের বিরুদ্ধে রায়গঞ্জ থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।