এশিয়ান হাইওয়েতে গোরু বাঁচাতে গাড়ি উল্টে আহত ৭ 

147

রাঙ্গালিবাজনা: ৪৮ নম্বর এশিয়ান হাইওয়েতে অবাধে ঘুরে বেড়াচ্ছে গবাদি প্রাণীর দল। ফলে আরও বিপজ্জনক হয়ে উঠেছে রাস্তাটি। শুক্রবার বেলা দু’টো নাগাদ বীরপাড়ার অদূরে ডিমডিমা চা বাগানে গোরুকে বাঁচাতে গিয়ে উল্টে যায় একটি ছোট চারচাকার গাড়ি। ওই দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন চালক সহ ৭ জন আরোহী। আহতরা অমিত কুমার, বিরেন চৌহান, বিক্রম পাসোয়ান, দীপক কুমার, অ্যাঞ্জেল কুমার, সনু কুমার ও তাপস কুমার। সকলেই বিহারের কিশনগঞ্জের বাসিন্দা। শিবরাত্রি উপলক্ষ্যে জয়ন্তী মহাকাল ধামে এসেছিলেন তাঁরা। ফেরার পথে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে গাড়ি। বীরপাড়া থানার ওসি বিরাজ মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘গাড়িটি আটক করা হয়েছে। তদন্ত শুরু হয়েছে।’

মাদারিহাট বীরপাড়া ব্লকে এশিয়ান হাইওয়ের ওপর গবাদি প্রাণীদের অবাধ বিচরণ বিপদের কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে বলে যানচালকরা দীর্ঘদিন ধরে অভিযোগ তুলে আসছেন। ভুক্তভোগীদের অভিযোগ, এশিয়ান হাইওয়ের মতোন একটি ব্যস্ত রাস্তায় দলে দলে গবাদি প্রাণীদের অবাধে ঘোরাঘুরি করতে দেখা যায় সারাদিনই। ফলে গবাদি প্রাণীর দল ওই রাস্তায় অনেক সময় দুর্ঘটনার কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে। এতে সবচেয়ে বেশি সমস্যা হচ্ছে মোটরবাইক আরোহীদের। এশিয়ান হাইওয়ে দিয়ে চলাচলের সময় যে কোনও মুহূর্তেই সামনে এসে পড়ছে গোরু, ছাগল। বর্ষায় ঘাস জমিগুলিতে জল দাঁড়িয়ে থাকায় সারাদিন খাবারের খোঁজে এশিয়ান হাইওয়ের দু’পাশের ঝোপঝাড়ে ঘোরাঘুরি করতে করতে যখন তখন রাস্তায় উঠে পড়ছে গবাদি প্রাণীরা।

- Advertisement -

প্রসঙ্গত মাদারিহাট থেকে এথেলবাড়ি পর্যন্ত ৪৮ নম্বর এশিয়ান হাইওয়ের কমবেশি ২০ কিমি দীর্ঘ অংশটিতে পথ দুর্ঘটনা এমনিতেই রোজনামচা হয়ে দাঁড়িয়েছে। ওই এলাকায় পথ দুর্ঘটনায় সাড়ে তিন বছরে কমবেশি ৭২ জনের মৃত্যু হয়েছে। ডিমডিমা চা বাগান এলাকার বাসিন্দা হীরা তালুকদার বলেন, ‘সারাদিন ওই রাস্তায় ঘুরে বেড়াচ্ছে গোরু, ছাগল। এতে রাস্তাটি আরও বিপজ্জনক হয়ে উঠেছে।’