একই সংশোধনাগারের ৬৪ বন্দি করোনা আক্রান্ত

অনলাইন ডেস্ক: একই সংশোধনাগারের ৬৪ বন্দির দেহে করোনার সংক্রমণ মিলল। ওই সংশোধনাগারে মোট ৮২ জন বন্দি রয়েছে।

মধ্যপ্রদেশের রাইসেন জেলার বরেলি সংশোধনাগারে এই চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটেছে। তবে আক্রান্তদের অধিকাংশের শরীরেই কোনও উপসর্গ নেই। বেশকিছু আক্রান্তকে জেলেই আইসোলেশন ওয়ার্ড তৈরি করে রাখা হয়েছে। জেলের ৩ নিরাপত্তারক্ষীর শরীরেও করোনার সংক্রমণ মিলেছে। সোমবার সন্ধ্যায় সংশোধনাগারের এই ৬৭ জনের পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে।

- Advertisement -

মঙ্গলবার জেলের বাকি ১১ জন কর্মী ও আধিকারিকের লালা পরীক্ষা করা হয়েছে। কারা দপ্তরের ডিজি সঞ্জয় চৌধুরি বলেন, কোভিড-পজিটিভ ২২ জন উপসর্গযুক্ত বন্দি এবং কর্মীকে বিদিশা জেলার মেডিকেল কলেজে স্থানান্তরিত করা হচ্ছে। বাকি যারা উপসর্গহীন তাঁদের জেলেই কোয়ারান্টিনে রাখা হয়েছে। 

সম্ভবত নতুন আসা বন্দিদের কারণেই সংক্রমণ ছড়িয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। সম্প্রতি কয়েকজন বন্দির কাশি, সর্দি এবং জ্বর দেখা দেওয়ায় রবিবার বন্দি এবং কারাকর্মীদের কোভিড পরীক্ষা করা হয়। পরদিন অর্থাৎ সোমবার সেই পরীক্ষার রিপোর্ট আসে।

জুনের শেষের দিকে মহারাষ্ট্রের আকোলা সংশোধনাগারের ৬৮ বন্দির দেহে করোনার সংক্রমণ মেলে। তবে আক্রান্তদের অধিকাংশের শরীরেই কোনও উপসর্গ ছিল না। জেলেই আইসোলেশন ওয়ার্ড তৈরি করে তাঁদের রাখা হয়েছিল।

প্রসঙ্গত, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, করোনা আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে মধ্যপ্রদেশ ১৪ নম্বরে রয়েছে। এখনও পর্যন্ত সেখানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২৩ হাজার ৩১০। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ১৫ হাজার ৬৮৪ জন। মৃত্যু হয়েছে ৭৩৮ জনের। অর্থাৎ, সেখানে এখনও করোনা অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ৬ হাজার ৮৮৮।

এদিকে দেশে এখনও পর্যন্ত করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে সংখ্যা ১১ লক্ষ ৫৫ হাজার ১৯১। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৭ লক্ষ ২৪ হাজার ৫৭৮ জন। মৃত্যু হয়েছে ২৮ হাজার ৮৪ জনের। অর্থাৎ, দেশে করোনা অ্যাক্টিভ কেসের সংখ্যা ৪ লক্ষ ২ হাজার ৫২৯।