Residents pay their respects by placing flowers for the victims of the mosques attacks in Christchurch on March 16, 2019. - A right-wing extremist who filmed himself rampaging through two mosques in the quiet New Zealand city of Christchurch killing 49 worshippers appeared in court on a murder charge on March 16, 2019. (Photo by MICHAEL BRADLEY / AFP)

ক্রাইস্টচার্চ, ১৭ মার্চঃ নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ শহরে জোড়া হামলায় এখনও পর্যন্ত সাত ভারতীয়ের মৃত্যু হয়েছে বলে খবর মিলেছে। এদের মধ্যে চারজনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে তাঁদের পরিবার। এদের মধ্যে রয়েছেন কেরলের এক ছাত্রী, হায়দরাবাদের এক সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার ও দুজন গুজরাটের বাসিন্দা। এছাড়া ভারতীয় বংশোদ্ভূত তিনজনের খবরও মিলেছে। রবিবার নিউজিল্যান্ডের ভারতীয় হাই কমিশনের তরফে নিহত পাঁচ জনের নাম প্রকাশ করা হয়েছে। তাঁরা হলেন মেহবুব  খোকার, রামজি ভোরা, আসিফ ভোরা, অ্যান্সি আলিবাভা এবং ওজির কাদের। হাই কমিশনের ওই টুইটে ‘মেনশন’ করা হয়েছে বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজকেও। এখনও দু’জন ভারতীয় নিখোঁজ বলে জানা গিয়েছে।

হাই কমিশনের তালিকায় নাম না থাকলেও হায়দরাবাদের বাসিন্দা ফরহাজ আহসানের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে তাঁর পরিবার। অকল্যান্ড ইউনিভার্সিটি থেকে এমএস করার পর সম্প্রতি ক্রাইস্টচার্চের একটি বেসরকারি সংস্থায় প্রজেক্টের কাজ করছিলেন। নিউজিল্যান্ডেই রয়েছেন তাঁর স্ত্রী, তিন বছরের মেয়ে ও ছ’মাসের ছেলে। প্রতি শুক্রবারই নমাজ পড়তে আল নুর মসজিদে যেতেন ফারহাজ। গতকালও গিয়েছিলেন। আততায়ী হামলার পর থেকেই তাঁর খোঁজ মিলছিল না। পরে নিউজিল্যান্ড প্রশাসনের তরফে তাঁর মৃত্যুর খবর জানানো হয়। অপর নিহত কেরলের ত্রিশূরের বাসিন্দা অ্যান্সি আলিবাভা। স্বামীর সঙ্গে মসজিদে নমাজ পডতে গিয়ে তিনি গুলিবিদ্ধ হন। পরে হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়। তাঁর স্বামীরও গুলি লেগেছে। তিনি হাসপাতালে ভরতি রয়েছেন।