সংক্রমণের আঁতুড় রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ, করোনা আক্রান্ত আট চিকিৎসাকর্মী

589
ফাইল ছবি

রায়গঞ্জ: করোনা সংক্রামিত হয়ে রায়গঞ্জে ফের মৃত্যু হল একজনের। পাশাপাশি রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের সিসিইউ (ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিট)-এর আট চিকিৎসাকর্মীর শরীরে সংক্রমণ ধরা পড়েছে। সোমবার বিকেল পাঁচটা নাগাদ সিসিইউ বিভাগে কর্মরত ওই আটজন চিকিৎসাকর্মীকে রায়গঞ্জের কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সিসিইউ-এর কর্মীরা করোনা সংক্রামিত হওয়ায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজে। আপাতত সিসিইউ বন্ধ রয়েছে। এছাড়া সিসিইউ লাগোয়া ডায়ালিসিস বিভাগও বন্ধ রাখা হয়েছে। কবে ফের সিসিইউ খুলবে, তা স্পষ্ট করতে পারেনি মেডিকেল কলেজ কর্তৃপক্ষ। তবে মেডিকেল কলেজের নোডাল অফিসার বিপ্লব হালদার বলেন, সমস্ত ঘর স্যানিটাইজ করার পাশাপাশি ভাইরোলজি বিভাগের বিশেষজ্ঞদের ডাকা হয়েছে। জীবাণুমুক্ত করার পরেই পরিষেবা চালু হবে।

মেডিকেল কলেজ সূত্রে জানা গিয়েছে, সিসিইউ বিভাগে ৪ জন ডাক্তার, ১৬ জন নার্স ১০ জন স্বাস্থ্যকর্মী ও চারজন মেডিকেল টেকনোলজিস্ট রয়েছেন। কয়েকদিন আগে প্রবল জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে সিসিইউ বিভাগে ভর্তি হয়েছিলেন এক বৃদ্ধ। তাঁর লালার নমুনা পরীক্ষা করতেই রিপোর্ট পজিটিভ  আসে। সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে আইসোলেশন ওয়ার্ডে স্থানান্তরিত করা হয়। এছাড়া রায়গঞ্জের বন্দর এলাকার এক অবসরপ্রাপ্ত পশু চিকিৎসক মেডিকেল কলেজে ডায়ালিসিস করতে এসে সিসিইউ বিভাগে ভর্তি হয়েছিলেন। তাঁরও করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছিল। রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজের আইসোলেশন বিভাগে স্থানান্তরিত করা হলে কয়েক ঘণ্টার মধ্যে তাঁর মৃত্যু হয়। সিসিইউ বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসকদের বক্তব্য, ওই দু’জনের থেকেই সকলে সংক্রামিত হয়েছেন।

- Advertisement -

মেডিকেল কলেজ সূত্রে জানা গিয়েছে, মেডিকেল কলেজে কর্মরত চিকিৎসক, নার্স ও চিকিৎসাকর্মীদের লালার নমুনা নেওয়া হয়েছিল। তাঁদের মধ্যে আটজনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। সিসিইউ বিভাগে কর্মরত নার্স ও চিকিৎসকদের মেডিকেল কলেজ ক্যাম্পাসে কোয়ারান্টিনে রাখা হয়েছে। রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত তাঁদের সেখানেই থাকতে বলা হয়েছে।

এছাড়া রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজের মর্গের কর্মীর লালার নমুনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। ওই গ্রুপ ডি কর্মীকে কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করার প্রক্রিয়া চলছে। অন্যদিকে, রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজের পুরুষ সার্জিক্যাল বিভাগের দু’জন আয়াও করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে একজনের বাড়ি রায়গঞ্জ শহরের দেবীনগরে। অপরজনের বাড়ি রায়গঞ্জ শহরের কলেজ পাড়ায়। তাঁদের কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করা হবে। রায়গঞ্জ থানার এক মহিলা পুলিশ আধিকারিকের শরীরেও সংক্রমণ ধরা পড়েছে।

এদিকে, করোনা আক্রান্ত হয়ে এদিন রায়গঞ্জ শহরের চন্ডীতলা এলাকার ৬০ বছর বয়সি এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে মেডিকেল কলেজের আইসোলেশন ওয়ার্ডে। তাঁর পরিবারের সদস্যদের হোম কোয়ারান্টিনে থাকতে বলা হয়েছে। মঙ্গলবার তাঁদের লালার নমুনা পরীক্ষা করা হবে।

মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক রবীন্দ্রনাথ প্রধান জানান, আতঙ্কের কোনও কারণ নেই। প্রত্যেকেই সুস্থ হয়ে উঠবেন।