মিনিবাস-বোলেরো সংঘর্ষে আহত ৮

480

আসানসোল: যাত্রী বোঝাই মিনিবাসের সঙ্গে বোলেরো গাড়ির মুখোমুখি সংঘর্ষে আহত হলেন ৮ জন। ঘটনাটি ঘটেছে, রবিবার সকালে আসানসোলের রানিগঞ্জ থানার পাঞ্জাবি মোড়ের লাগোয়া ৬০ নং জাতীয় সড়ক এলাকায়। দুর্ঘটনার জেরে ৬০ নং জাতীয় সড়কে ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন সকালে রানিগঞ্জ উখড়া রুটের একটি মিনিবাস যাত্রী নিয়ে উখড়া থেকে রানিগঞ্জ বাসস্ট্যান্ডের দিকে যাচ্ছিল। সেই সময় ৬০ নং জাতীয় সড়কে আনন্দলোক হাসপাতালের সামনে একটি বোলেরো গাড়ি রানিগঞ্জ বাসস্ট্যান্ডের দিক থেকে পাঞ্জাবি মোড়ের দিকে যাওয়ার সময় ওভারটেক করার সময় নিয়ন্ত্রন হারিয়ে একটি পিকচআপ ভ্যান ও টোটোকে ধাক্কা মারে। পরে বোলেরো গাড়িটির সঙ্গে ঐ মিনি বাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এই ঘটনার সময় মিনিবাসের পেছনে থাকা একটি মোটরবাইকও দুর্ঘটনার কবলে পরে। এই ঘটনায় মিনিবাসের ৫ যাত্রী, পিকআপ ভ্যানের চালক সহ মোট ৮ জন আহত হয়। ঘটনার খবর পেয়ে রানিগঞ্জ থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। তড়িঘড়ি আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

- Advertisement -

এদিন পুলিশ আরও জানায়, মিনি বাসে থাকা এক শিশু ও পিকআপ ভ্যানের চালকের আঘাত বেশি থাকায় তাদের আসানসোল জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এই ঘটনার জেরে ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয় ৬০ নং জাতীয় সড়কে। বেশ কিছুক্ষনের চেষ্টায় পুলিশ পরিস্থিতি স্বাভাবিক করে যান চলাচল শুরু করায়।

অন্যদিকে, ঘটনার খবর পাওয়ার পরে ঘটনাস্থলে আসেন রানিগঞ্জের বিধায়ক রুনু দত্ত। তিনি ক্ষোভের সঙ্গে বলেন, ‘বারংবার বিধানসভায় রানিগঞ্জের রাস্তার সমস্যা নিয়ে বলার পরেও কোন উদ্যোগ গ্রহণ করেনি রাজ্য সরকার ও এখানকার পুলিশ ও প্রশাসন। রানিগঞ্জের বাইপাস রোডকে সম্প্রসারণের জন্য বারংবার দাবি করা হয়েছে। রানিগঞ্জে প্রতিদিনই বলতে গেলে গাড়ির সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে চলেছে। এর ফলে দুর্ঘটনা রানিগঞ্জে নিত্যনৈমিত্তিক ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে। যা আটকানো যেতে পারে একমাত্র বাইপাস রোড তৈরী করা হলে।‘

যদিও আসানসোল পুরনিগমের পুর প্রশাসক বোর্ডের অন্যতম সদস্য তথা রানিগঞ্জের বোরো অফিসের দায়িত্বে থাকা পূর্ণশশী রায় বলেন, ‘রাস্তা চওড়া করার কাজ পুরনিগম ইতিমধ্যেই শুরু করেছে। যার ফলে দুর্ঘটনায় অনেকটা রাস টানা সম্ভব হয়েছে। আগামীদিনেও সরকার বিভিন্ন ব্যবস্থা গ্রহণের উদ্যোগ নিচ্ছে।‘ এদিন তিনি রুনু দত্তর অভিযোগকে উড়িয়ে দিয়ে বলেন, ‘রাজ্য সরকার ও পুলিশ প্রশাসন মানুষের কথা ভেবে যা করার করছে।‘