পারিবারিক বিবাদের জেরে অপহৃত শিশু, উদ্ধার আটদিন বাদে

74

হরিশ্চন্দ্রপুর: পারিবারিক বিবাদের জেরে মামীর হাতে অপহৃত হয়েছিল ৫ বছরের শিশু। অপহরনের ঠিক আটদিন পর বিহারের কিশনগঞ্জ থেকে ওই শিশুকে উদ্ধার করল হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকায় সুলতান নগর গ্রাম পঞ্চায়েত অঞ্চলের বাইজনাথপুর গ্রামে। শিশুটিকে উদ্ধার করে শিশু কল্যাণ সমিতির মাধ্যমে তাঁকে পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। তবে, অভিযুক্ত মহিলা এখনও পলাতক। তার খোঁজে বাংলা বিহারজুড়ে তল্লাশি চালাচ্ছে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ।

ওই শিশুর পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, তিন বছর আগে দেখাশোনা করে কিশনগঞ্জের অভিযুক্ত আফসানা খাতুনের সঙ্গে বিয়ে হয় নাইমুল হকের। তবে, বিয়ের পর থেকে তাঁদের দাম্পত্য কলহ ছিল চূড়ান্ত। জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে বইজনাথপুরে বাপের বাড়িতে আসেন নাইমুলের সন্তানসম্ভবা দিদি। তারই ৫ বছরের ছেলেকে নিয়ে  জানুয়ারি অভিযুক্ত পালিয়ে যান বলে অভিযোগ। স্বামী সহ শ্বশুরবাড়ির লোকজনকে শিক্ষা দিতেই নাকি পাঁচ বছরের ভাগ্নাকে অপহরণ করে পালিয়েছিলেন ওই মহিলা। এমনটাই অভিযোগ। ঘটনায় পুত্রবধূর বিরুদ্ধে নাতিকে অপহরণের অভিযোগ তুলে পুলিশের দ্বারস্থ হন দাদু আজিমুল হক। পরবর্তীতে জানা যায়, অভিযুক্ত মহিলা শিশুকে নিয়ে বাপের বাড়িতে গিয়েছেন। এরপরেই, হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ অভিযানে নামে। কিশনগঞ্জ থানার পুলিশের সহযোগীতায় অভিযুক্তর বাপের বাড়ি থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। তবে, পুলিশ পৌঁছানোর আগেই গা ঢাকা দেন অভিযুক্ত।

- Advertisement -

নাতিকে ফিরে পেয়ে দাদু আজিমুল তিনি বলেন, ‘অনেক বাড়িতেই দাম্পত্য সমস্যা থাকে। তাই বলে পুত্রবধূ যে এমন করবে ভাবতেও পারছি না।‘

হরিশ্চন্দ্রপুরের আইসি সঞ্জয় কুমার দাস জানান, অভিযুক্ত মামী পলাতক। তাঁর খোঁজে তল্লাশি চলছে। অন্যদিকে, আফসানার প্রতি নির্যাতন হলে সেবিষয়ে লিখিত অভিযোগ জানানোর কথাও বলা হয়েছে।