হাসিনাকে খুনের চেষ্টায় ১৪ ইসলামিক জঙ্গিকে মৃত্যুদণ্ডের নির্দেশ ঢাকা আদালতের

140

ঢাকা: ফের প্রাণ সংকটে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী। তবে এবার সেই সংকট মেটাতে এবং হাসিনাকে হত্যার ষড়যন্ত্র করায় ১৪ ইসলামিক জঙ্গিকে মৃত্যুদণ্ডের সাজা শোনাল ঢাকার একটি দ্রুত বিচার আদালত। জানা গিয়েছে, আজ থেকে প্রায় ২১ বছর আগে ২০০০ সালে হাসিনা প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন গোপালগঞ্জ জেলার কোটালীপাড়ায় তাঁর একটি জনসভা স্থলে বোমা রাখা হয়েছিল। সেই মামলায় জড়িত ১৪ জঙ্গিকে বুধবার ফায়ারিং স্কোয়াডের সামনে দাঁড় করানোর নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

পাশাপাশি, আদালত জানিয়েছে যদি কোনও কারণে ফায়ারিং স্কোয়াডের সামনে দোষীদের মৃত্যু না ঘটে সেক্ষেত্রে ফাঁসিতে ঝোলানো যেন হয়। এই সাজা শুনিয়েছেন ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল ১-এর বিচারক আবু জাফর মোঃ কামরুজ্জামান। সাজা শুনিয়ে তিনি বলেন, ‘এরূপ ঘটনার পুরনাবৃত্তি যাতে আর কখনও না ঘটে সেইজন্যই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।’

- Advertisement -

অন্যদিকে, সরকারি পক্ষের আইনজীবী আব্দুল্লা ভুঁইয়াকে বলতে শোনা যায়, ‘অবশেষে অভিযুক্তদের দোষী প্রমাণ করা গেল। আসামিদের এমন দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিলে তবেই এই ন্যক্কারজনক ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধ করা সম্ভব।’