মিথ্যা মামলায় বাবাকে জেল খাটিয়েছে পুলিশ, সবুজ সাথী প্রত্যাখ্যান মেয়ের

337

রামপুরহাট: বাবাকে মিথ্যা মামলায় জেল খাটিয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পুলিশ। সেই রাগেই সরকারের সবুজসাথী সাইকেল প্রত্যাখ্যান করল মেয়ে। লিখিতভাবে সেকথা স্কুলের প্রধান শিক্ষককে জানান ওই ছাত্রী।

স্থানীয় সূত্রে খবর, ওই ছাত্রীর নাম মৌতৃষা দে। বাড়ি বীরভূমের মল্লারপুর থানার ভগবতীপুর গ্রামে। চলতি শিক্ষাবর্ষে সে কুসুমি হাইস্কুলের দশম শ্রেণীর ছাত্রী। শুক্রবার তাদের সাইকেল দেওয়ার দিন ধার্য হয় স্কুলের তরফে। সেই মতো এদিন স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের সাইকেল দেওয়ার জন্য মল্লারপুরে ময়ূরেশ্বর-১ নম্বর ব্লক কিষান মান্ডিতে ডেকে পাঠানো হয়। সেখানে গিয়ে সাইকেল না নেওয়ার কথা লিখিতভাবে জানান প্রধান শিক্ষককে।

- Advertisement -

প্রধান শিক্ষককে লেখা চিঠিতে সে জানায়, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পুলিশ গত বছরের ১৭ সেপ্টেম্বর আমার বাবা সুশান্ত দে’কে মিথ্যা মামলায় গ্রেপ্তার করে। এরপর মল্লারপুর, মাড়গ্রাম, নলহাটি ও তারাপীঠ থানা ঘুরিয়ে ৩৫ দিন পর জামিনে মুক্তি দেওয়া হয়। তাছাড়া যে সরকার মেয়েদের জন্য স্কুলে আলাদা শ্রেণীকক্ষ তৈরি করে দিতে পারে না, মেয়েদের সুরক্ষা দিতে ব্যর্থ সেই সরকারের সাইকেল নেব না।

ওই ছাত্রীর বাবা সুশান্তবাবু বলেন, ‘স্কুলের শিক্ষকদের ধন্যবাদ জানাই। কারন স্কুলের শিক্ষকরা আমার মেয়েকে প্রকৃত শিক্ষা দিয়ে মানুষ গড়ে তুলেছে। মেয়ের সাইকেল না নেওয়ার সিদ্ধান্তকে আমি পূর্ণ সমর্থন করি। আমি মনে করি এই প্রতিবাদের শিক্ষা স্কুল থেকেই পেয়েছে।’

প্রধান শিক্ষক শ্রীকান্ত মণ্ডল বলেন, ‘ওই ছাত্রী ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে সাইকেল নিতে চায়নি। বিষয়টি আমি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানাব।’