ব্লক সভাপতির সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে মত প্রকাশ ১৮ জন বুথ সভাপতির

44

বক্সিরহাট: গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের আবহের মাঝেই জোড়াইমোড় ভানুকুমারী-২ অঞ্চল কমিটির দপ্তরে তৃণমূলের তুফানগঞ্জ-২ ব্লক কমিটির সভা ঘিরে উত্তেজনা ছড়াল বুধবার। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন হয় এলাকায়। শেষ অবধি কড়া পুলিশি নিরাপত্তা বলয়ের মাঝেই শেষ হয় সভা। এবিষয়ে, ধনেশ্বরবাবুর বক্তব্য, সেটা প্রশাসনের বিষয়। পুলিশ-প্রশাসন হয়তো ভেবেছে সভাকে কেন্দ্র করে আইনশৃঙ্খলা বিঘ্নিত হতে পারে, তাই হয়তো নিরাপত্তার বাড়তি আয়োজন ছিল।

সম্প্রতি ভানুকুমারি-২ অঞ্চল কমিটির সভাপতি সুজিত ঘোষকে দল বিরোধী কার্যকলাপ সহ স্বজনপোষণ-তোলাবাজির অভিযোগে শোকজ করেছেন ব্লক সভাপতি ধনেশ্বর বর্মন। তাঁর পরিবর্তে অঞ্চল কমিটির আহ্বায়ক পদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বিশ্বজিৎ সরকারকে। ঘটনায় প্রকাশ্যে আসে গোষ্ঠী কোন্দল। যদিও সেসবে থোড়াই কেয়ার মনোভাব ব্লক সভাপতির। উলটে এদিন নব নিযুক্ত আহ্বায়ক বিশ্বজিৎ সরকারের সঙ্গে দলীয় নেতা-কর্মীদের পরিচয় পর্ব সারতে বিশেষ সভা সারলেন। এবিষয়ে ধনেশ্বর বর্মন জানান, আগামীতে তাঁর নির্দেশেই বিভিন্ন কর্মসূচি সহ উন্নয়নমূলক কাজ চলবে। পাশাপাশি সকলকে একসঙ্গে নিয়ে কাজ করার কথা স্পষ্ট করেছেন তিনি। যদিও ব্লক সভাপতির এহেন ঘোষণার বিরোধীতা করেন ভানুকুমারী-২ অঞ্চলের ১৮ জন বুথ সভাপতি। তাঁদের তরফে ১৩৪ নম্বর বুথ সভাপতি রফিকুল মিয়া সাংবাদিকদের জানান, সভায় উপস্থিত থাকলেও ব্লক সভাপতি ঘোষিত অঞ্চল কমিটির আহ্বায়ক বিশ্বজিৎ সরকারকে তাঁরা মেনে নেবেন না। প্রয়োজনে এনিয়ে দলনেত্রীর কাছেও দরবার করতে পারেন বলে ইঙ্গিত দেন তাঁরা।

- Advertisement -